রাজপথে নামা ছাড়া বিকল্প নাই : ফখরুল

বর্তমান অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে রাজপথে নামা ছাড়া কোনো বিকল্প নাই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও সম্প্রীতি ডিজেল-কেরোসিনের দাম বৃদ্ধিতে সাধারণ মানুষের অবস্থার তুলে ধরে তিনি এই মন্তব্য করেন।

আজ শনিবার কাকরাইলের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য প্রয়াত তরিকুল ইসলামেনর তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ‘তরিকুল ইসলাম স্মৃতি সংসদ’র আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব এ কথা বলেন। ২০১৮ সালের ৪ নভেম্বর রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তরিকুল ইসলাম। একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠন, খালেদা জিয়ার সরকারের মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য ছিলেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এদিকে জিনিসপত্রের দাম বাড়ছে হু হু করে, অন্যদিকে এখন আবার হঠাৎ করে একলাফে পার লিটারে ১৫ টাকা বাড়িয়ে দিলো ডিজেল-কেরোসিনের দাম। ফলে আরও দ্বিগুণ বাড়বে দ্রব্যমূল্য। এখন সাধারণ মানুষ যাবে কোথায়? তাদের তো এখন না খেয়ে অপুষ্টিতে মৃত্যুবরণ করার মতো অবস্থা হয়ে গেছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা সব সময় যেটা বলে আসছি, এখনো বলছি কোনো বিকল্প নাই। একমাত্র পথ হচ্ছে এদেরকে (আওয়ামী লীগ সরকার) সরিয়ে দিয়ে সত্যিকার অর্থেই একটা জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করা, পার্লামেন্ট তৈরি করা। আসুন আমরা সেই লক্ষ্যে সবাই ঐক্যবদ্ধ হই, আমরা সবাই রাজপথে নেমে আসি এবং আমাদের শক্তি দিয়ে, জনগণের শক্তি দিয়ে এই “ভয়াবহ দানবীয়” সরকারকে পরাজিত করে সত্যিকার অর্থে একটা জনগণের রাষ্ট্র, জনগণের পার্লামেন্ট, জনগণের সরকার তৈরি করি।’

বিএনপির জ্যেষ্ঠ এই নেতা বলেন, ‘এই সরকার পরিকল্পিতভাবে রাষ্ট্রকে অকার্যকর করতে কাজ করছে। তারা দেশকে নতজানু রাষ্ট্রে পরিণত করছে তারা।’

তরিকুল ইসলামের বর্ণাঢ্য জীবন তুলে ধরে তার আদর্শ অনুসরণ করার জন্য নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব।

বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আজিজুল বারী হেলাল, শামীমুর রহমান শামীম, আমিরুজ্জামান শিমুলের পরিচালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সেলিমা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, শামসুজ্জামান দুদু প্রমুখ।


আরও পড়ুন