রাজবাড়ীতে আ.লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীকে গুলি করে হত্যা

রাজবাড়ীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের এক মনোনয়নপ্রত্যাশী নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

নিহত আব্দুল লতিফ (৫৫) সদর উপজেলার বালিবহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও টানা ৯ বছর চেয়ারম্যান ছিলেন। এবারও তিনি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।

নিহতের পরিবার জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে রাজবাড়ী শহর থেকে বাড়ি ফিরছিলেন আব্দুল লতিফ। এ সময় সন্ত্রাসীরা তাকে এলোপাতাড়ি গুলি করে।

গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে তাকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল ও পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে উন্নতি চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। তার শরীরে বিভিন্ন স্থানে গুলির চিহ্ন রয়েছে।

নিহতের স্ত্রী শেফালি বেগম বলেন, আমার স্বামী টানা ৯ বছর চেয়ারম্যান ছিলেন। এবারও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছিলেন। তার জনপ্রিয়তা দেখেই সন্ত্রাসীরা তাকে হত্যা করেছে।

তিনি বলেন, আমার স্বামী বঙ্গবন্ধুর আদর্শের নেতা ছিলেন। আমার স্বামীকে যারা হত্যা করেছে তাদের বিচার দাবি জানাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদত হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।


আরও পড়ুন