দেশের খবর - November 15, 2021

আ’লীগ প্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বহিষ্কার

আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগে বগুড়ার ধুনট উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি গোলাম মূর্তজাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এবিএম সবুজ।

তিনি বলেন, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি গোলাম মূর্তজাকে দল থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, তৃতীয় ধাপে ধুনট উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে মথুরাপুর ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগেরে মনোনীত নৌকার প্রার্থী হাসান আহম্মেদ। তিনি রোববার রাত ১১টার দিকে প্রচারণা শেষ করে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা গোলাম মূর্তজা ও আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী শফিকুল ইসলামসহ চারজন মোটরসাইকেল দিয়ে ধাক্কা দিলে মোটরসাইকেল থেকে মাটিতে ছিটকে পড়েন হাসান আহম্মেদ। এতে হাসান আহম্মেদ আহত হন। এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে ওই চারজনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন তিনি।

নৌকার প্রার্থী হাসান আহম্মেদ অভিযোগ করে বলেন, গোলাম মূর্তজার নেতৃতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা আমার ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। তাদের মোটরসাইকেলের ধাক্কায় আমি মোটরসাইকেল থেকে রাস্তার পাশে ছিটকে পড়ি। হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে তারা আমাকে ভোট করতে দিবে না বলে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে গোলাম মূর্তজা বলেন, হাসান আহম্মেদের লোকজন আমার ভাইকে বিএনপির স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী হিসেবে মারধর করেছে। ঘটনার সময় কাশিয়াহাটা এলাকায় হাসান আহম্মেদ উপস্থিত ছিল না। কিন্তু হাসান আহম্মেদ নিজে আহত হওয়ার ঘটনা সাজিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে। বহিষ্কারে বিষয়ে কোনো পত্র এখনো হাতে পাইনি।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, সংবাদ পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। নৌকার প্রার্থীর ওপর হামলা ও প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগটি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও পড়ুন