কিশোরগঞ্জ সদরে নৌকার ভরাডুবি

তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ১১টির মধ্যে ১০ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে বেসরকারীভাবে ঘোষিত ফলাফলে ৫টিতে স্বতন্ত্র, ৪টি আ’লীগ ও একটি জাতীয় পার্টির প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ফলাফলে মহিনন্দে লিয়াকত আলী জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী লাঙল প্রতীকে ৭২৮১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি আওয়ামীলীগের প্রার্থী ছাদেকুর রহমান নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৬১৭০ ভোট।

যশোদলে ইমতিয়াজ সুলতান রাজন স্বতন্ত্র-চশমা প্রতীকে ৫৯৫০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি আওয়ামীলীগের প্রার্থী নৌকা প্রতীকে বাবুল হাজী পেয়েছেন ৫৪৩৪ ভোট।

বৌলাইয়ে আওলাদ হোসেন নৌকা প্রতীকে ৬৩৩৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি বাবুল মোল্লা-আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৫৮৭১ ভোট।

বিন্নাটিতে শফিকুল ইসলাম-স্বতন্ত্র-আনারস প্রতীকে ৭৫৯১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি আজহারুল ইসলাম নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৩৩০২ ভোট।

চৌদ্দশত ইউনিয়নে স্বতন্ত্র- আতহার আলী চশমা প্রতীকে ৯৫০৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি ফারুক আহমেদ বাচ্চু-স্বতন্ত্র-আনারস প্রতীকে ৮৪১৪ ভোট।

মাইজখাপন ইউনিয়নে আবুল কালাম আজাদ-নৌকা প্রতীকে ৭৮৩৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি মফিজ উদ্দিন -স্বতন্ত্র-মটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৬৪২৪ ভোট।

লতিফাবাদ একটি কেন্দ্র স্থগিত রয়েছে। তবে মো:আ:রাজ্জাক-স্বতন্ত্র-চশমা-৫৫৩০ ভোট,শহিদুল ইসলাম- স্বতন্ত্র-অটোরিক্সা প্রতীকে পেয়েছেন ৪২০৯ ভোট।

মারিয়া ইউনিয়নে মুজিবুর রহমান-নৌকা প্রতীকে ৮৯১৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি সালাহ উদ্দিন-স্বতন্ত্র আনারস প্রতীকে ৮৫৩৩ ভোট পেয়েছেন।

রশিদাবাদ ইউনিয়নে জহিরুল ইসলাম-স্বতন্ত্র-আনারস প্রতীকে ৫৪২৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি ওমর ফারুক লিটন-চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ৪০৬৪ ভোট।

কর্শাকড়িয়াল ইউনিয়নে বদর উদ্দিন-নৌকা প্রতীকে ৮৯৯৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি কামাল উদ্দিন-স্বতন্ত্র আনারস প্রতীকে ৬৫৬৮ ভোট।

দানাপাটুলি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ মাসুদ মিয়া অটোরিকশা প্রতীকে ৩০২৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্বি শাখাওয়াত হোসেন দুলাল-নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ২২০২ ভোট।


আরও পড়ুন