ইতিহাসের সবচেয়ে বড় জয় পেল ভারত

প্রথম ইনিংসে ১০ উইকেটের সবকটি নিয়ে ইতিহাসে নাম লিখিয়েছেন এজাজ প্যাটেল। দ্বিতীয় ইনিংসেও নিউজিল্যান্ডের এই বাঁহাতি স্পিনার পেলেন ৪ উইকেট।

দুই ইনিংস মিলিয়ে ২২৫ রানে ১৪ উইকেট, যা ভারতের বিপক্ষে এক টেস্টে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড। কিন্তু কিউই ব্যাটারদের ব্যর্থতায় প্যাটেলের কীর্তিধন্য মুম্বাই টেস্টে জয় পেয়েছে ভারত।

মুম্বাই টেস্টে নিউজিল্যান্ডকে ৩৭২ রানে হারিয়ে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে জয় ভারতের। সিরিজের প্রথম টেস্ট ড্র হয়েছিল।

ইনিংস ব্যবধানের হারগুলোর বাইরে রানের হিসেবে এটিই কিউইদের টেস্ট ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে হার, ভারতের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় জয়।

এজাজের ইতিহাস গড়া অর্জন রঙিন হলো না দলের পারফরম্যান্সে।

রোববার তৃতীয়দিনে সাত উইকেটে ২৭৬ রান তুলে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিকরা।

ফলে জয়ের জন্য চতুর্থ দিনে ভারতের প্রয়োজন ছিল ৫ উইকেট। সোমবার স্রেফ ১১.৩ ওভারেই কিউইদের ৫ উইকেট তুলে নেন ভারতীয়রা।

আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান হেনরি নিকোলস ও রাচিন রবীন্দ্রর জুটি ভাঙার পর আর কেউ দাঁড়াতে পারেনি স্পিনার জয়ন্ত যাদবের সামনে।

প্রথমে জয়ন্ত যাদবকে টানা দুটি চার মারার পর স্লিপে ক্যাচ দেন রবীন্দ্র। নিজের পরের ওভারেই জয়ন্ত ফেরান কাইল জেমিসন ও টিম সাউদিকে। এই অফ স্পিনার এরপর নিজের পরের ওভারে আউট করেন উইলিয়াম সমারভিলকে।

এরপর রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বলে ঋদ্ধিমান সাহার দুর্দান্ত স্টাম্পিংয়ে ৪৪ রানে থামেন শেষ নিকোলস।

অর্থাৎ ৫ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে শেষ হয় নিউজিল্যান্ডের ইনিংস।

অফ স্পিনার জয়ন্ত প্রায় ৫ বছর পর টেস্টে ফিরে ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ে নেন ৪৯ রানে ৪ উইকেট। ইনিংসে ৪ আর ম্যাচে ৮ উইকেট নিয়ে শেষ করেন অশ্বিন।

বোলারদের দারুণ সব পারফরম্যান্সের ম্যাচে ১৫০ ও ৬২ রানের ইনিংস খেলে ম্যান অব দ্য ম্যাচ ভারতীয় ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়াল। সিরিজে ১৪ উইকেট নিয়ে ম্যান অব দ্য সিরিজ অশ্বিন।


আরও পড়ুন