হাতির ব্যাজ দেখলেই তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে হাতি মার্কার কর্মী-সমর্থকদের তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগের লোকজনের বিরুদ্ধে।

হাতির প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকারের প্রধান নির্বাচনি এজেন্ট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল এ অভিযোগ করেছেন।

তিনি রোববার দুপুর ১২টার দিকে বলেন, বন্দরের সোনাকান্দায় যুবদল নেতা মনোয়ার হোসেন শোখনকে পুলিশ নিয়ে গেছে। হাজীগঞ্জে আইইটি স্কুলের সামনে থেকে হাতির ব্যাজ পরা জামাল ও শাহ আলমকে নিয়ে গেছে পুলিশ। সেখানে নৌকার লোকজন অন্যায়ভাবে প্রভাব বিস্তার করছে। সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার হাউসকেন্দ্রে হাতির এজেন্টকে বের করে দিয়েছে। শহরের মরগ্যান ও শিশুবাগ স্কুলে হাতির লোকজনদের থাকতে দেওয়া হচ্ছে না। আরও অনেক কেন্দ্রে হাতির এজেন্ট ও সমর্থকদের বের করে দিয়েছেন ক্ষমতাসীনরা।

আইইটি কেন্দ্র থেকে দুজনকে আটকের বিষয়ে জানতে চাইলে আইইটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. তৌফিকুল ইসলাম জানান, ভোটকেন্দ্রের বাইরে কী হয়েছে তা আমার জানা নেই৷ তবে কেন্দ্রের ভেতর কোনো সমস্যা হয়নি এখন পর্যন্ত। সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে নির্বাচন হচ্ছে ৷ এখন পর্যন্ত ১৮.৫০ শতাংশ ভোটগ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল মতিন জানান, সন্দেহজনকভাবে ভোটকেন্দ্রের আশপাশে ঘোরাফেরা করার কারণে দুজনকে আটক করা হয়েছে ৷


আরও পড়ুন