ইউক্রেনে চরম আতঙ্কে প্রবাসী বাংলাদেশিরা

ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধ পরিস্থিতিতে আতঙ্কে আছেন দেশটিতে আটকেপড়া প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

এ অবস্থায় তাদের জন্য ভিসা ছাড়া উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে পোল্যান্ড-ইউক্রেন সীমান্ত। সীমান্তরক্ষী বাহিনীকে পাসপোর্ট দেখিয়ে পোল্যান্ড ও রোমানিয়ায় ঢুকতে পারবেন বৈধ পাসপোর্টধারীরা। শুক্রবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) আলাদা বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

রাশিয়ার সামরিক অভিযান শুরুর পর ইউক্রেনে যুদ্ধ পরিস্থিতি বিরাজ করায় আতঙ্কে আছেন স্থানীয় জনগণসহ প্রবাসী বাংলাদেশিরাও। দেশটিতে জরুরি অবস্থা ও কারফিউ জারি থাকায় সবকিছু বন্ধের কারণে চরম দুশ্চিন্তায় আছেন সাধারণ মানুষ। এ অবস্থায় যে যেভাবে পারছেন, ছুটছেন পাশের দেশ পোল্যান্ড সীমান্তের দিকে।

একজন বলেন,  আমরা পোল্যান্ডে প্রবেশের অপেক্ষায় আছি, যদি সম্ভব হয় সাইপ্রাসে যাবে, সেখানে আমার বন্ধুরা থাকেন। আমার অনেক বন্ধুবান্ধব এখনো কিয়েভে রয়েছেন, তারা তাদের ভবিষ্যত নিয়ে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছেন।

এমন অবস্থায় ইউক্রেনে আটকেপড়া বাংলাদেশিদের করণীয় সম্পর্কে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে পোল্যান্ডের বাংলাদেশ দূতাবাস।

শুক্রবার সকালে পোল্যান্ডের ওয়ারসের বাংলাদেশ দূতাবাসের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা ছাড়া উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে পোল্যান্ড-ইউক্রেন সীমান্ত। এ ছাড়াও বৈধ পাসপোর্টধারীরা সীমান্ত রক্ষী বাহিনীকে পাসপোর্ট দেখিয়ে ঢুকতে পারবেন পোল্যান্ডে।

শনিবার সকালে পোল্যান্ড-ইউক্রেন সীমান্তের পথে রওনা হবে ওয়ারসের বাংলাদেশ দূতাবাসের একটি দল। এ সময় ইউক্রেন থেকে পোল্যান্ডে ঢুকতে ইচ্ছুক বাংলাদেশিদের সহায়তা করবেন তারা।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, যাদের পাসপোর্ট নেই, তারা ট্রাভেল পাস নিয়ে পোল্যান্ডে ঢুকতে পারবেন। প্রত্যেক বাংলাদেশিকে দুই কপি পাসপোর্ট সাইজ রঙিন ছবি সঙ্গে রাখতে অনুরোধ করা হয়।

এ ছাড়া ইউক্রেনের দক্ষিণ এবং দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের প্রবাসী বাংলাদেশিরা রোমানিয়ায় যেতে পারবেন। দেশটির সরকার দুই দিনের থাকার ব্যবস্থাসহ বুখারেস্টে বাংলাদেশ দূতাবাসের তত্ত্বাবধানে রেখে তাদের দেশে আসার ব্যবস্থা করবে বলে ফেসবুক বার্তায় জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।


আরও পড়ুন