রৌমারীতে মা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে ধানক্ষেতে এক গৃহবধূ ও তার শিশুসন্তানকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার ভোরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের নতুন বন্দর হাজিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- হাফসা আক্তার (২৬) ও তার পাঁচ মাস বয়সী শিশুসন্তান হাবীব।

রৌমারী থানার ওসি মোন্তাছির বিল্লাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুর সবুর জানান, হাজিপাড়া গ্রামে ধানক্ষেতে গোঙানির শব্দ পেয়ে লোকজনকে ডেকে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটিকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। এ সময় শিশুটির মা হাফসা আক্তার গোঙাচ্ছিলেন। দুজনের গলা ধারাল অস্ত্র দিয়ে কাটা ছিল।

খবর পেয়ে পুলিশ এসে হাফসা আক্তারকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

হাফসা আক্তারের ভাই হাসিনুর রহমান জানান, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার বোনের মৃত্যু হয়। তিনি আরও জানান, তার বোনজামাই ঢাকায় কাজ করেন। এ ঘটনা শুনে তিনি ঢাকা থেকে রওনা হয়েছেন।

ওসি মোন্তাছির বিল্লাহ বলেন, হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে এখনো পর্যন্ত কোনো ক্লু পাওয়া যায়নি। রোববার সকালে দুজনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠানো হবে। নিহতদের অভিভাবক এলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার সৈয়দা জান্নাত আরা জানান, বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। খুনের সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত করতে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে। দ্রুত খুনের মোটিভ জানতে পারব।


আরও পড়ুন