করিমগঞ্জ - August 13, 2022

করিমগঞ্জে তিন কোটি টাকার উন্নয়ন কাজের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন

কিশোরগঞ্জ- ৩ (করিমগঞ্জ-তাড়াইল) এর সাংস জাপা মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, করিমগঞ্জ-তাড়াইলে মহাসড়কসহ প্রত্যান্ত গ্রাম পর্যায়েও প্রায় ৯০ ভাগ রাস্তা পাকাকরণ করা হয়েছে। আশা করছি ২০২২-২৩ অর্থবছরের মধ্যে বাকি রাস্তাগুলোর কাজও সম্পন্ন হয়ে যাবে।

শনিবার বিকালে উপজেলার জয়কা, গুনধর ও বারঘরিয়া ইউনিয়নের ৬টি রাস্তার উন্নয়ন কাজের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন শেষে নোয়াবাদ ইউনিয়নবাসির দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

ভিত্তিপ্রস্থরকালে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার পলাশ কুমার বসু, উপজেলা প্রকৌশল কর্মকর্তা মোঃ বখতিয়ার, উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি দেলোয়ার হোসেন দুলাল, গুনধর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আবু সায়েম রাসেল, জয়কা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ূন কবির, বারঘরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল আহসান কাঞ্চন, দেহুন্দা ইউপি চেয়ারম্যান এম এ হানিফ, উপজেলা জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি মোঃ আব্দুলর রাজ্জাক, উপজেলা জাতীয় যুব সংহতির আহ্বায়ক হাজী উজ্জল মিয়াসহ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সম্পাদকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা প্রকৌশল কর্মকর্তা মোঃ বখতিয়ার বলেন, রাস্তাগুলো বাস্তবায়ন হলে এই অঞ্চলের মানুষের জীবনমানের উন্নয়ন হবে। বিশেষ করে এই অঞ্চলের মানুষ কৃষি ও মৎস্য সম্পদটা সহজেই তারা বাজারজাত করতে পারবে এবং দেশের অর্থনীতিতে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে। এছাড়াও এই অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মানোন্নয়নে রাস্তাগুলো অনস্বীকার্য ভূমিকা রাখবে বলেও তিনি প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

উপজেলা এলজিইডি সূত্রে জানা যায়, উপজেলার জয়কা ইউনিয়নের পানাহার বাজার থেকে কলাবাগ, কাইন্দাল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ছৈয়ার বেপারির বাড়ি, পাড়াকুল মোড় থেকে বড় হাওর রাস্তা, নোয়াবাদ ইউনিয়নের বালিয়াবাড়ি থেকে ভাঙ্গাখালি, নোয়াবাদ রশিদের বাড়ি থেকে ঝাউতলা বাজার রোড, বারঘরিয়া ইউনিয়নের আয়লা প্রাইমারি স্কুল থেকে চাতল হাই স্কুল রোড পর্যন্ত রাস্তার প্রায় ৩ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে।


আরও পড়ুন