জেএমবির ৩ সদস্যের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) তিন সদস্যকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে জেএমবির আরেক সদস্যকে ১৪ বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে লালমনিরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মিজানুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার পাটগ্রাম পৌরসভার রসুলগঞ্জ এলাকার লুৎফর রহমানের ছেলে আসাদুজ্জামান ওরফে আপেল মিস্ত্রি, একই এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে শফিক ইসলাম ও সোহাগপুর এলাকার হাফিজুর রহমানের ছেলে মোখলেছুর রহমান ওরফে মোখলেছার রহমান। একই উপজেলার মির্জারকোর্ট এলাকার মজিবর রহমানের ছেলে তফিজুল ইসলামকে ১৪ বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এই মামলার আরেক আসামি শিশু। এ কারণে তার মামলাটি শিশু আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

আদালত সূত্র ও মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৮ আগস্ট রংপুর র‌্যাব-১৩ এর একটি অভিযানিক দল পাটগ্রাম পৌরসভার পোস্ট অফিসপাড়ার এমএম প্লাজা মার্কেটের একটি দোকান থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, জিহাদি বই ও লিফলেটসহ আপেল মিস্ত্রি, শফিক, মোখলেছুর, তফিজুল ইসলাম ও এক শিশুকে গ্রেপ্তার করে। পরে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে আসামি করেন রংপুর র‌্যাবে কর্মরত এসআই আসাদুজ্জামান। এরপর তাদের পাটগ্রাম থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

লালমনিরহাট আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট আকমল হোসেন জানান, চার জনকে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে ১৪ বছরসহ বিভিন্ন মেয়াদে সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাস করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই মামলায় আপেল মিস্ত্রি, শফিক ইসলাম ও মোখলেছুরকে অস্ত্র আইনের ১৮৭৮ এর ১৯(এফ) ও ১৯(এ) ধারা মোতাবেক যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।


আরও পড়ুন