দলে ফেরার চিঠি পেলেন জাহাঙ্গীর

গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন থেকে সাময়িক বরখাস্ত হওয়া মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলমকে দলে ফিরিয়ে নেয়ার চিঠি দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

শনিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয় থেকে পাঠানো চিঠি হাতে পেয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম। গত পহেলা জানুয়ারি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ চিঠিতে সই করেন। চিঠির অনুলিপি দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককেও দেয়া হয়েছে।

ভবিষ্যতে সংগঠনের স্বার্থ পরিপন্থি কার্যক্রম ও সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গ না করার শর্তে তাকে ক্ষমা করা হয়েছে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

চিঠিতে বলা হয়, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বার্থ, আদর্শ, শৃঙ্খলা তথা গঠনতন্ত্র ও ঘোষণাপত্র পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ততার জন্য ইতোপূর্বে আপনাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার/অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। আপনার বিরুদ্ধে আনীত সংগঠনবিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগ স্বীকার করে আপনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন এবং ভবিষ্যতে সংগঠনের গঠনতন্ত্র, নীতি ও আদর্শ পরিপন্থি কোনো কার্যকলাপে সম্পৃক্ত হবেন না মর্মে লিখিত দিয়েছেন।

এমতাবস্থায়, ১৭ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখ গণভবনে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সংগঠনের গঠনতন্ত্রের ১৭(৬) এবং ৪৭ (২) ধারা মোতাবেক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের নিকট সাধারণ ক্ষমা প্রার্থনা করে আপনার প্রেরিত লিখিত আবেদন পর্যালোচনা এবং ভবিষ্যতে সংগঠনের স্বার্থ পরিপন্থি কর্মকাণ্ড ও শৃঙ্খলা ভঙ্গ না করার শর্তে আপনার প্রতি ক্ষমা প্রদর্শন করা হলো।

ভবিষ্যতে কোনো প্রকার সংগঠনবিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হলে, তা ক্ষমার অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে।

প্রতিক্রিয়ায় জাহাঙ্গীর বলেন, ২০২২ সালের ১৭ ডিসেম্বর গণভবনে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমাকে আওয়ামী লীগে ফিরিয়ে নেওয়া হয়। এ জন্য প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ ও জাতীয় কমিটির সকল নেতৃবৃন্দের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

এ ব্যাপারে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউল্যাহ মন্ডল বলেন, এটি আওয়ামী লীগের হাইকমান্ডের ব্যাপার। কারও ব্যাপারে দল যে সিদ্ধান্ত নেবে তা আমাদের অবশ্যই মেনে নিতে হবে।


আরও পড়ুন