দেশের খবর - November 10, 2016

অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন ইবির উপাচার্য

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ রিপোর্ট : 

সড়ক দুর্ঘটনার হাত থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক রাশিদ আসকারী।

উপাচার্যের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, আজ বৃহস্পতিবার সকালে ক্যাম্পাস থেকে উপাচার্য রাশিদ আসকারী কুষ্টিয়ার ছেঁউড়িয়ায় লালন উৎসবে যাচ্ছিলেন। সকাল নয়টার দিকে ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো কোম্পানির কারখানার সামনে পৌঁছালে তাঁকে বহনকারী গাড়িটি হঠাৎ ঝাঁকি দিয়ে ওঠে। চালক মো. আসাদ দ্রুত গাড়িটি থামান। পরে তিনি দেখতে পান, গাড়ির পেছনের বাঁ পাশের চাকার ছয়টি নাটের পাঁচটিই খুলে পড়ে গেছে। পরে উপাচার্য অন্য গাড়িতে করে ওই উৎসবে যোগ দেন।

বেলা দেড়টার দিকে ক্যাম্পাসে পৌঁছালে শিক্ষক সমিতি, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, জিয়া পরিষদ এবং গ্রিন ফোরামের নেতারা উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করেন। তাঁরা ঘটনাটিকে ষড়যন্ত্র বলে উল্লেখ করে এর সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের কঠোর শাস্তির দাবি জানান। তাঁরা প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়েও ওই দাবি জানান।
এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমানকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। এ কমিটিকে তিন কার্য দিবসের মধ্যে তদ প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উপাচার্যের গাড়িচালক মো. আসাদ বলেন, ‘প্রথমে গাড়িতে একটি ঝাঁকি লাগে। পরে খটখট শব্দ হতে থাকলে ব্রেক করে গাড়ি সাইড করি। পরে পেছনের চাকার পাঁচটি নাট খুলে পড়ে গেছে দেখতে পাই।’

উপাচার্য রাশিদ আসকারী বলেন, ‘বিষয়টিকে আমার কাছে সাধারণ ঘটনা বলে মনে হয়নি। এর পেছনে কোনো দুরভিসন্ধি থাকতে পারে বলে মনে হয়।’ এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান উপাচার্য।

 

 

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/১০-১১-২০১৬ইং/নোমান 


আরও পড়ুন