জাতীয় - প্রচ্ছদ - December 1, 2016

বাংলাদেশের মাটিকে অন্য দেশের সন্ত্রাসীদের ব্যবহার করতে দেয়া হবে না : প্রধানমন্ত্রী

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ রিপোর্ট :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে তার সরকারের ‘জিরো টলারেন্স’ নীতির কথা তুলে ধরে বলেছেন, বাংলাদেশের মাটি ব্যবহার করে অন্য কোনো দেশে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করতে দেয়া হবে না।
বৃহস্পতিবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনহর গোপালকৃঞ্চ প্রভু পারিকরের বৈঠককালে তিনি এ কথা বলেন।
বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের বলেন, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের সহায়তার কথা কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী। মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর যেসব সদস্য জীবন দিয়েছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর পরবর্তী ভারত সফরের সময় তাদের সন্মান জানানো হবে।
সম্প্রতি ভারতের কোস্টগার্ড বাংলাদেশি জেলেদের সাগর থেকে উদ্ধার করে দেশে ফেরত্ পাঠানোর ঘটনা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান। এসময় ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বাংলাদেশের কোস্টগার্ডের সক্ষমতা আরও বাড়াতে প্রশিক্ষণ সহযোগিতার প্রস্তাব দেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের প্রশংসা করেন মনহর পারিকর। বিশেষ করে নারীর ক্ষমতায়নে ভারত যা করতে পারেনি, বাংলাদেশ তা পেরেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
সাক্ষাতে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে ব্যবহূত একটি হেলিকপ্টারের রেপ্লিকা ও প্যারাট্রুপারদের ছবি প্রধানমন্ত্রীকে হস্তান্তর করেন।
বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল মাহফুজুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদিন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম, ভারতের হাই কমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/০১-১২-২০১৬ইং/নোমান


আরও পড়ুন

1 Comment

  1. I simply want to say I’m new to weblog and really liked you’re web site. Most likely I’m want to bookmark your website . You definitely have remarkable posts. Cheers for sharing your website page.

Comments are closed.