ফেসবুকে লাইভ গণধর্ষণের ভিডিও, গ্রেফতার ৩

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,

সুইডেনে এক নারীকে গণধর্ষণ এবং সেই দৃশ্য ফেসবুক লাইভে সম্প্রচারের ঘটনায় তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সুইডেনের আপসালা শহরে গত রোববার এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ বলছে, সকালে এক নারী এসে তাদের জানায় একটি নারীকে গণধর্ষণের ‘লাইভ ভিডিও’ ফেসবুকের একটি ক্লোজড গ্রুপে সম্প্রচারিত হয়েছে।

ফেসবুকে যারা এ ভিডিও দেখেছেন তারা বলছেন ধর্ষকদের একজন শেষদিকে বলে ‘তুমি এখন ধর্ষিত নারী’ এবং এরপর হাসিতে ফেটে পড়ে ওই ব্যক্তি।

জোসেফাইন লুদগ্রেন নামে ২১ বছরের এক নারী পুলিশের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ করার পেই পুলিশ সন্দেহভাজন তিন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে।

যে গ্রুপটিতে ভিডিওটি সরাসরি সম্প্রচারিত হয় সেটার সদস্য হাজারখানেক।

মিস লুদগ্রেন সুইডিশ একটি ট্যাবলয়েড পত্রিকা এক্সপ্রেসেনকে বলছিলেন তিনি কী দেখেছেন। ধর্ষণের শিকার ওই নারীকে কিভাবে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত হেনস্থা করা হয়েছে সেই বর্ণনাও দিয়েছেন তিনি।

ধর্ষকদের একজনের কাছে বন্দুক ছিল বলেও জানান জোসেফাইন লুদগ্রেন।

ফেসবুক লাইভে ওই ভিডিওটি অনেকে দেখেছেন এবং মিস লুদগ্রেন বলছেন তিনি দেখেছেন অন্তত ৬০ জনকে ওই ভিডিওটি দেখছে।

স্থানীয় একটি এপার্টমেন্ট থেকে পুলিশ সন্দেহভাজন তিনজনকে গ্রেফতার করেছে। এদের বয়স ১৯ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে। এ ছাড়াও আটক করা হয়েছে এক নারীকে।

অনলাইনের দর্শকরা সুইডিশ মিডিয়াকে বলেছেন, তারা একই রকম দ্বিতীয় আরও একটি ভিডিও দেখতে পেয়েছেন। তাতেও ধর্ষণ করা হচ্ছে ওই একই নারীকে। এতে সন্দেহ করা হচ্ছে, ওই নারী কি স্বেচ্ছায় এমন শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করছেন?

তবে প্রথম ভিডিওটি সম্পর্কে সুইডেনের রাষ্ট্রীয় প্রচারমাধ্যম এসভিটি বলছে, ওই নারীকে ধর্ষণ করে যখন ফেসবুকে এ দৃশ্য প্রচার করা হচ্ছিল তখন সেখানে পুলিশ উপস্থিত হয়।

সূত্র : বিবিসি বাংলা

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/ ২৪ -০১-২০১৭ইং  / মো: হাছিব


আরও পড়ুন