অর্থনীতি - January 25, 2017

২০২০ সালের আগেই প্রবৃদ্ধি ৮ ভাগে উন্নীত হবে

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ রিপোর্ট,

আগামী ২০২০ সালের আগেই প্রবৃদ্ধি অর্জনের হার শতকরা ৮ ভাগে উন্নীত করা সম্ভব হবে বলে মন্তব্য করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বুধবার বিকেলে একনেক সম্মেলন কেন্দ্রে সাধারণ অর্থনীতি বিভাগ, পরিকল্পনা কমিশন ও জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট লক্ষ্য (এসডিজি) ও লক্ষ্য বাস্তবায়ন শীর্ষক গণমাধ্যমের সঙ্গে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য ড. শামসুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজিবিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহম্মদ শফিকুর রহমান, দৈনিক ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস সম্পাদক এ এইচ এম মোয়াজ্জেম হোসেন, দৈনিক প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম এবং ইউএনডিপির কান্ট্রি ডিরেক্টর সুদীপ্ত মুখার্জি বক্তৃতা করেন।

অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অগ্রগতি সারাবিশ্বের বিস্ময়। দেশের সবশ্রেণির মানুষের কারণেই তা সম্ভব হয়েছে। সরকার সবাইকে নিয়েই উন্নয়নের উদ্যোগ নিয়েছে। কাউকে পিছিয়ে রেখে টেকসই অগ্রগতি অর্জন হতে পারে না।

তিনি চলতি বছর প্রবৃদ্ধি শতকরা সাড়ে সাত ভাগ অর্জন সম্ভব হবে উল্লেখ করে বলেন, ২০২০ সালের আগেই প্রবৃদ্ধি অর্জনের হার শতকরা ৮ ভাগে উন্নীত করা সম্ভব হবে।

তিনি বলেন, সাত বছর আগেও এডিপি বাস্তবায়ন ছিল ২২ হাজার কোটি টাকা। বর্তমানে এ হার ছয়গুণেরও বেশি বাস্তবায়িত হচ্ছে। কারিগরি ও দক্ষ জনশক্তি শতকরা একভাগ থেকে ১০ ভাগে উন্নীত হয়েছে। ২০২১ সালের মধ্যে এ হার শতকরা ২২ ভাগে উন্নীত হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বাংলাদেশের অগ্রগতিকে বেগবান করতে প্রতিবন্ধকতা চিহ্নিত করে তা নিরসনে আরো বেশি যত্নবান হওয়ার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

 

মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠ ডটকম/ ২৫ -০১-২০১৭ইং  / মো: হাছিব


আরও পড়ুন