জাতীয় - June 27, 2018

প্রতিবেশীদের সহযেগিতায় উন্নয়ন ত্বরান্বিত হয় : প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিবেশীদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘এর মাধ্যমে এই অঞ্চলের উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে। আমরা প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ককে গুরুত্ব দেই। এর মাধ্যমে এই অঞ্চলের উন্নয়ন এবং প্রবৃদ্ধি ত্বরান্বিত হবে।’

বাংলাদেশে শ্রীলংকার নবনিযুক্ত হাইকমিশনার জেনারেল এডব্লিউজেসি ডি সিলভা মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সংসদ ভবনস্থ কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাতে এলে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।বৈঠকের পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

রোহিঙ্গা ইস্যুকে দেশের জন্য একটি বিরাট সমস্যা আখ্যায়িত করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা সমস্যা সমাধানে মিয়ানমারের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করছি। মিয়ানমার তাদের নাগরিকদের বাংলাদেশ থেকে ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে তারা তা করছে না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা দেশে আরও শিল্পায়ন এবং কর্মসংস্থানের জন্য দেশব্যাপী একশ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলছি এবং এখানকার ব্যবসাবান্ধব পরিবেশের সুযোগ নিয়ে শ্রীলংকার উদ্যোক্তারা এখানে বিনিয়োগে এগিয়ে আসতে পারেন।’
বাংলাদেশ ৯০টিরও বেশি দেশে ওষুধ জাতীয় পণ্য রফতানি করছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা শ্রীলংকাতেও আলু ও পাট রফতানি করছি। ব্যাপকসংখ্যক শ্রীলংকান, নেপালি ও ভুটানের শিক্ষার্থী বাংলাদেশের মেডিক্যালসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করছে। আমরা আরও বেশিসংখ্যক শ্রীলংকার শিক্ষার্থীদের আমাদের মেডিক্যাল কলেজগুলোতে অধ্যয়নের জন্য স্বাগত জানাচ্ছি।’
প্রতিবেশী দুই দেশের মধ্যে একটি মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষরের বিষয়ে হাইকমিশনার বলেন, এ বিষয়ে এরই মধ্যে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।
বৈঠকের শুরুতেই শ্রীলংকার হাইকমিশনার সে দেশের রাষ্ট্রপতি মাইথ্রিপালা শ্রীসেনার শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছে দেন। খবর- বাসস।


আরও পড়ুন