প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনে অপেক্ষায় হাওরের অলওয়েদার সড়ক

হাওড়ের দ্বিগন্ত বিস্তৃত স্বচ্ছ জলরাশির বুকে নৌকায় ঘুরে বেড়ানো, পানির মাঝে জেগে থাকা দ্বীপের মত গ্রাম, রাতারগুলের মত ছোট জলাবন, হাওড়ের তাজা মাছ ভোজন। সব মিলিয়ে একদিনের ট্যুরের জন্য আদর্শ একটি জায়গা। জনপ্রিয় ট্যুরিস্ট প্লেসগুলোতে মানুষের ভিড়ে যখন অতিষ্ট, সেক্ষেত্রে এবার প্রকৃতির এ রূপ সাগরে যোগ হয়েছে ইটনা-মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম অলওয়েদার সড়ক। এ সড়ক উদ্বোধন আগেই ভ্রমণপিপাসুদের কাছে পর্যটনের নতুন জায়গা হিসেবে স্থান পেয়েছে। প্রতিদিন হাজারো পর্যটক এসে ভীড় করে এ সড়কে। আগামী ৮ অক্টোবর সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে হাওরবাসীর এ স্বপ্নের সড়ক উদ্বোধন করবেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কিশোরগঞ্জের সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রাশেদুল আলম।

সড়ক ও জনপদ বিভাগের অধীনে এক হাজার দুই শত ৬৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রামে সারা বছর চলাচল উপযোগী ৪৭ কিলোমিটার উচু পাকা সড়ক ও ৩৫ কিলোমিটার সাবমার্সেবল সড়ক নির্মাণ করা হয়। এতে ২২টি পাকা সেতু, ১০৪টি কালভাট নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়া শুকনো মৌসুমে শহরের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করার জন্য বিভিন্ন নদীতে ৫টি ফেরি চালু করা হয়েছে।

সুএে জানা যায়, ভবিষ্যতে হাওরের অলওয়েদার সড়কটি সিলেট-ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহাসড়কের সাথে সংযোগ স্থাপন করা হবে। এছাড়া হাওরে ফ্লাইওভার নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে।


আরও পড়ুন