রাতের আঁধারে ববি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা

রাতের আঁধারে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ১১ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে সড়ক অবরোধের জের ধরে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে আহতরা জানিয়েছেন।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে মহাসড়ক অবরোধ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

আহত শিক্ষার্থীরা হলেন- মৃত্তিকা ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের  নুরুল্লাহ সিদ্দিকী, রসায়ন বিভাগের এসএম সোহানুর রহমান, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের আহসানুজ্জামান, গণিত বিভাগের ফজলুল হক রাজীব, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের আলীম সালেহী, বোটানি ও ক্রপ সাইন্সের আলী হাসান, বাংলা বিভাগের মো. রাজন হোসেন এবং মার্কেটিং বিভাগের মাহবুবুর রহমান, মাহাদী হাসান ইমন, মিরাজ হাওলাদার ও সজীব শেখ।

আহতরা বর্তমানে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে (পুরুষ) চিকিৎসাধীন।

ঘটনাসূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত ১টায় নগরীর রূপাতলী এলাকায় মাহমুদুল হাসান তমালের মেসে হামলা করে কতিপয় পরিবহন শ্রমিক।

এ ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তমালকে উদ্ধারে এগিয়ে আসেন পার্শ্ববর্তী মেসের শিক্ষার্থীরা। তখন ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা দিয়ে আগত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালানো হয়।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার সকাল ৭টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তসাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থার দাবি জানিয়েছেন তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. সুব্রত কুমার দাস জানান, রাতে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যান তিনিসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষক-কর্মকর্তাবৃন্দ। পরে আহত সব শিক্ষার্থীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার নগরীর রূপাতলী এলাকায় বিআরটিসি বাস কাউন্টারের স্টাফ কর্তৃক বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে লাঞ্ছিতের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সেদিন দুপুর দেড়টা থেকে প্রায় ২ ঘণ্টা সেখানকার বাস টার্মিনালে অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। পরে রফিক নামের অভিযুক্ত স্টাফকে পুলিশ গ্রেফতার করলে অবরোধ তুলে নেন তারা।


আরও পড়ুন