দেশের খবর - February 23, 2021

পাওনা টাকা চাওয়ায় খুড় দিয়ে বন্ধুর গলা কাটলো নাপিত বন্ধু

নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় পাওনা এক হাজার টাকা চাওয়ায় সেলুনের খুড় দিয়ে পাওনাদার বন্ধুর গলা কেটে দিয়েছে নাপিত বন্ধু। সোমবার রাত সাড়ে আট টার দিকে উপজেলার বামুনিয়া কাছারী বাজারে শওকত আলীর (৪০) গলা কাটে সুবাস শর্মা (৩৮)। গুরুত্বর অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকাবাসী সুবাশকে আটক করলে রাতেই পুলিশ তাকে থানায় নিয়ে আসে। শওকতের ভাইয়ের মামলায় মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, সোমবার সন্ধ্যার দিকে মধ্য-খামার বামুনিয়া এলাকার শষি মোহন শর্মার ছেলে সুবাস শর্মার কাছারি বাজারের সেলুনের দোকানে যায় তার বন্ধু পূর্ব-বারবিশা এলাকার মৃত ফজির উদ্দিনের ছেলে শওকত আলী। শওকত তার পাওনা এক হাজার টাকা সুবাশের কাছে ফেরত চায়। সুবাশ টাকা দিতে অপারগতা জানায়। এতে দুই বন্ধুর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর এক পর্যায়ে সেলুনে রাখা খুড় দিয়ে শওকতের গলা কেটে দেয় নাপিত সুবাশ। এলাকাবাসী ছুটে এসে শওকতকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।তার অবস্থা গুরুত্বর হওয়ায় সাথে সাথে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। এলাকাবাসী সুবাশকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। রাতেই পুলিশ সুবাশ শর্মাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ডোমার থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ মোস্তাফিজার রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এলাকাবাসী সুবাশকে আটক করে পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছে। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


আরও পড়ুন