দেশের খবর - March 31, 2021

আমতলী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতির বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন

বরগুনার আমতলী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, মোহনা টেলিভিশন, দৈনিক দক্ষিণাঞ্চল ও আমার সংবাদ পত্রিকার আমতলী প্রতিনিধি, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর জি, এম মুসার বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সাংবাদিকরা মানববন্ধন করেছে।

আমতলী উপজেলা সাংবাদিক সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টায় আমতলী উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে এ মানববন্ধন করা হয়। এতে নারী সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশার লোক অংশ নেন।

জানা গেছে, উপজেলা যুবলীগ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফাহাদ গত ২২ মার্চ এক পুলিশ কর্মকর্তার সাথে থানার সামনে একটি চায়ের দোকানে বসে চা পান করতেছিল। ওই সময় উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ নুরুল ইসলাম মৃধা ওই চায়ের দোকানে প্রবেশ কালে পুলিশ কর্মকর্তার সাথে তার ধাক্কা লাগে। এতে আওয়ামীলীগ নেতা পুলিশ কর্মকর্তার উপর ক্ষেপে যান। এ ঘটনায় যুবলীগ নেতা ফাহাদ পুলিশ কর্মকর্তার পক্ষ নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের সাথে তর্কে জড়িয়ে পরেন। এক পর্যায় তাকে লাঞ্ছিত করে যুবলীগ নেতা ফাহাদ এমন দাবী মুক্তিযোদ্ধার। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওইদিন সন্ধ্যায় যুবলীগ নেতা ফাহাদকে মারধর করে নুরুল ইসলাম মৃধার লোকজন। এ ঘটনায় ২৩ মার্চ রাতে ফাহাদ বাদী হয়ে আবুল কালাম আজাদসহ ১১ জনের নামে আমতলী থানায় মামলা দায়ের করেন। ঘটনার চার দিন পর ২৬ মার্চ (শুক্রবার) রাতে শাহাবুদ্দিন শিহাব নামের একজন আমতলী প্রেসক্লাব এর সাবেক সভাপতি, পৌর আওয়ামীলীগ এর সাধারণ সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার আমতলী প্রতিনিধি জি,এম মুসাকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনার পরপরই ফুসে উঠে আমতলীর মানুষ। শাহাবুদ্দিন শিহারের সাংবাদিক মুসার বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে বুধবার আমতলী উপজেলা সাংবাদিক সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। সাংবাদিক সমন্বয় পরিষদের আহবায়ক মোঃ রেজাউল করিমের সভাপতিত্বে ঘন্টাব্যপী মানববন্ধনে বক্তব্য রাখে প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহাবুদ্দিন পান্না, মোঃ জাকির হোসেন, পরিতোষ কর্মকার, আমতলী সাংবাদিক সমন্বয় পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ জসিম উদ্দিন সিকদার, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ নুহু-উল-আলম নবীন, সাংবাদিক জসিম উদ্দিন হাওলাদার, মোঃ হোসাইন আলী কাজী, কেএম সোহেল, সাফায়েত আল মামুন, মনিরুজ্জামান সুমন আকন, খাইরুল ইসলাম আকাশ, এইচএম কাওসার মাদবর, মহসিন মাদবর, কাইউম গাজী, রাসেল, রুবেল ও নারী সাংবাদিক নাসরিন শিপু প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা সাংবাদিক জিএম মুসার বিরুদ্ধে শাহাবুদ্দিন শিহাবের করা এ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানান।

আমতলী প্রেসক্লাব সাবেক সভাপতি পৌর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলর জি,এম মুছা বলেন, আমাকে রাজনৈতিকভাবে হয়রানী করতে এ মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। এ ঘটনার সাথে আমার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। তিনি আরো বলেন, ওই মামলার বাদী শাহাবুদ্দিন শিহাবকে আমি চিনি না। এ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানাই।

আমতলী থানার ওসি মোঃ শাহ আলম হাওলাদার বলেন, মামলাটি বরগুনা গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) হস্তান্তর করা হয়েছে। তারা তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন। বরগুনা জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি মোঃ আবুল বাশার বলেন, মামলাটি পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও পড়ুন