মুভমেন্ট পাসের জন্য ১৭ কোটির বে‌শি হিট

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দেশে গত বুধবার থেকে দেশে এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন জারি করা হয়েছে। এ সময়ে মানুষের চলাফেরা (মুভমেন্ট) ও কার্যক্রম কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণে ‘মুভমেন্ট পাস’ চালু করেছে পুলিশ। এই মুভমেন্ট পাসের জন্য আজ শনিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত ওয়েসাইটে ১৭ কোটির বে‌শি হিট বা চেষ্টা হয়েছে।

পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মিডিয়া) মো. সোহেল রানা জানান, শনিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত মুভমেন্ট পাসের জন্য প্রায় ১৭ কোটির বে‌শি হিট বা চেষ্টা হয়েছে। এ থেকেই বোঝা যায় বিপুল সংখ্যক মানুষ মুভমেন্ট পাস পেতে চেষ্টা করেছেন। বিপুল সংখ্যক মানুষ একইসঙ্গে এই পাসের জন্য আবেদন করায় প্রথমদিকে সার্ভারের ওপর বাড়তি চাপ ছিল। সে জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক সার্ভার বাড়ানো হয়েছে।

তিনি আরও জানান, মুভমেন্ট পাস চালু হওয়ায় মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা সহজ হয়েছে। এটি করোনার ভয়ানক সংক্রমণ রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। সরকারি নির্দেশনার কঠোর বাস্তবায়নে মাঠ পর্যায়ের সব পুলিশ সদস্য সর্বোচ্চ ধৈর্যের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন।

সরকারের সাম্প্রতিক নির্দেশনা বাস্তবায়নে কাজ করছে বাংলাদেশ পুলিশ। জনকল্যাণে সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নের সুবিধার্থে আইজিপি’র নির্দেশে ১৩ এপ্রিল চালু হয়েছে মুভমেন্ট পাস।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, মুভমেন্ট পাস গ্রহণ বাধ্যতামূলক নয় এবং সরকার ঘোষিত জরুরি সেবায় নিয়োজিত কতিপয় পেশায় যুক্ত ব্যক্তিগণের জন্য এই পাসের প্রয়োজন নেই, যা উ‌দ্বোধ‌নের দিন আইজিপি প্রেস ব্রি‌ফিংয়ে স্পষ্ট করেছেন। জরুরি কাজে যাতায়াতকারী ব্যক্তিরা পুলিশ চেকপোস্ট অতিক্রমের সুবিধার্থেই এই পাস সংগ্রহ করছেন।


আরও পড়ুন