টানা ৪ ইনিংসে তামিমের ফিফটি

ক্যান্ডি টেস্টে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনেও দাপুটে ব্যাটিং করে চলেছেন বাংলাদেশ দলের বাঁহাতি ওপেনার তামিম ইকবাল।

সিরিজের প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসেই ৭০-র বেশি রান করার পর, এবার দ্বিতীয় ম্যাচের প্রথম ইনিংসেও পঞ্চাশ ছাড়ালেন দেশসেরা এ ওপেনার।

দলের দুই উইকেট হারালেও তামিম ৭৪* রান নিয়ে ব্যাটিং করছেন। তার সঙ্গে রয়েছেন মমিনুল হক।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবালের অর্ধশতকে শুরুটা ভালো হলেও দলের শত রান পূরণ হওয়ার আগেই দুই উইকেট পড়ে যায় টাইগারদের।

ফলে প্রথম ইনিংসে ২৮ ওভারে দুই উইকেটে হারিয়ে সফরকারী বাংলাদেশের সংগ্রহ ১০৩ রান।

তামিম-সাইফ জুটি শুরুটা ভালোই করেছিল। কিন্তু হঠাৎই ছন্দপতন হয়। ব্যক্তিগত ২৫ রানের মাথায় প্রবীণ জয়াবিক্রমের বলে ডি সিলভার হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন সাইফ। ৯৮ রানে থামে তামিম-সাইফের উদ্বোধনী পার্টনারশিপ। অভিষিক্ত জয়াবিক্রমের এটাই টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম উইকেট।

সাইফ হাসানের পর বিদায় নেন নাজমুল হোসেন শান্ত। প্রথম টেস্টের সেঞ্চুরিয়ান শান্ত ফিরলেন শূন্য রানে। এক রানের ব্যবধানে টানা দুই উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে গেছে বাংলাদেশ।

প্রথম ইনিংসে এখনও শ্রীলঙ্কার চেয়ে ৩৯০ রানে পিছিয়ে আছে সফরকারি বাংলাদেশ।

গত বৃহস্পতিবার ক্যান্ডির পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নামে শ্রীলঙ্কা। দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান দিমুথ করুনারত্নে ও লাহিরু থিরিমান্নের জোড়া শতকে ভর করে ৭ উইকেটে ৪৯৩ রান তুলে শনিবার ম্যাচের তৃতীয় দিনের সকালে ইনিংস ঘোষণা করে স্বাগতিকরা।

ওপেনার লাহিরু থিরিমান্নে সর্বোচ্চ ১৪০ রান করেন। আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান দিমুথ করুনারত্নে করেন ১১৮ রান। এ ছাড়া ওশাদা ফার্নান্দো ৮১ এবং নিরোশান ডিকভেলা ৭৭ রান।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল বোলার ছিলেন তাসকিন আহমেদ। ১২৭ রানে ৪ উইকেট তুলে নেন এই পেসার। এ ছাড়া মেহেদি হাসান মিরাজ, শরিফুল ইসলাম ও তাইজুল ইসলাম একটি করে উইকেট নেন।

প্রসঙ্গত, ক্যান্ডিতে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের মধ্যকার দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট ড্র হয়।


আরও পড়ুন