ডোমারে জলাতঙ্ক নির্মূলে অবহিতকরণ সভা

২০২৩ সালে বাংলাদেশকে জলাতঙ্ক মুক্ত করার লক্ষ্যে নীলফামারী ডোমারে অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (২মে) দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে’র আয়োজনে নিজস্ব হলরুমে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডা. মো. রায়হান বারীর সভাপতিত্বে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সুপারভাইজার(এমডিভি) জিন্নু রাইন আলী জিয়ন,উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. তপন কুমার রায়,উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোজাম্মেল হক,সুপার ভাইজার (এমডিভি) নাঈম ইসলাম জীবন,স্বান্থ্য পরিদর্শক ইনচার্জ বেলাল উদ্দিন প্রমূখ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সুপারভাইজার(এমডিভি) জিন্নু রাইন আলী জিয়ন জানান, জলাতঙ্ক একটি ভয়ংকর মরণব্যাধি রোগ। জলাতঙ্ক রোগটি মুলত কুকুরের কামড় বা আচড়েঁর মাধ্যমে ছড়ায়। এছাড়ও বিড়াল,শিয়াল,বেজী, বানরের কামড় বা আচড়েঁর মাধ্যমে এরোগ হতে পারে।

উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ২০টি টিমে ১০০জন ও ১টি পৌর সভায় ৫টিমে ২৫জন আগামী ৬মে হতে ১০মে পাঁচদিন কুকুরের টিকাদান কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে। এবার ডোমার উপজেলায় ৩ রাউন্ড টিকা প্রদান করা হবে। প্রতিটি টিমে ২জন কুকুর ধরার লোক, ১ জন দক্ষ কুকুর ধরার লোক,১ জন টিকাদানকারী,একজন ডাটা কালেক্টর নিয়োজিত থাকবে।তারা প্রতিটি স্থানে শতকরা ৭০ভাগের অধিক পোষা বা বেওয়ারিশ কুকুরকে জলাতঙ্ক প্রতিষেধক টিকা প্রদান করবে। যা কুকুরের মধ্যে হার্ড ইমিউনিটি তৈরী করে এবং উক্ত এলাকাকে জলাতঙ্কের ঝুঁকিহ্রাস করে।


আরও পড়ুন