বসুন্ধরা সিটিতে অভিযান

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সচেতনতা বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্যবিধি বাস্তবায়নে রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিংমলে অভিযান চালিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে শুরু হয়ে এ অভিযান শেষ হয় ‍দুপুর দেড়টায়।

অভিযান চলাকালীন মাস্ক না পরায় শপিংমলের কয়েকজন ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানের নেতৃত্ব দেন ডিএমপির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ রফিকুল হক। এসময় দেখা যায়, শপিংমলে আসা ক্রেতারা মাস্ক পরলেও ব্যবসায়ীরা মাস্ক পরছেন না। এ কারণে মোট ১২ ব্যবসায়ীকে বিভিন্ন অংকের জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ রফিকুল হক সংবাদমাধ্যমকে বলেন, দুপুর থেকে অভিযান চলছে। কিছু কিছু দোকানি মাস্ক না পরেই ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এই অপরাধে তাদের ২০০, ৩০০ ও ৫০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়াও রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায়ও অভিযান চালাচ্ছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি’র) আরেক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সঞ্জীব দাস। তিনিও করোনা সচেতনতায়, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করছেন।

এর আগে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে গত ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে আটদিনের কঠোর লকডাউন শুরু হয়। লকডাউনের মধ্যে দোকান-শপিংমল বন্ধ রাখাসহ ১৩টি নির্দেশনা দেওয়া হয় সরকারের পক্ষ থেকে।তবে দোকান মালিকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ১১ দিন বন্ধ থাকার পর গত ২৪ এপ্রিল থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান ও শপিংমল খুল দিয়েছে সরকার।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, করোনা বিস্তার রোধে শর্তসাপেক্ষে চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আগের নির্দেশনার ধারাবাহিকতায় ব্যাপক সংখ্যক মানুষের জীবন-জীবিকার বিষয় বিবেচনা করে নতুন এই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। ওই প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট বাজার/সংস্থার ব্যবস্থাপনা কমিটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।


আরও পড়ুন