ঈদ উপহার নিয়ে মানুষের পাশে বিসিবি পরিচালক

মহামারির দুঃসহ দুর্ভোগের কাল পৃথিবীতে আগেও এসেছে। মানুষকে পার করতে হয়েছে দুর্বহ দিন। নিরন্তর যুদ্ধ করে বেঁচে থাকাটাই নাকি মানুষের অমোঘ নিয়তি। এই যুদ্ধে মানুষ সাহস হারায় না। হেরেও যায় না।

মানুষ এখন করোনার সাথে যুদ্ধ করছে। মহামারি করোনা ক্রমেই গেড়ে বসছে মানুষের দেহে। মনও এখন করোনার ভয়ে সদা সন্ত্রস্ত। এর শেষ কোথায়, তা এখনো অজানা। করোনার সাথে এ যুদ্ধে অসহায় মেহনতি শ্রমিকদের বেঁচে থাকাটাই যেন দায় হয়ে পড়েছে। এরমধ্যেই আবারও চলে এলো ঈদ।

এমন সময়ে মানুষের প্রতি ভালোবাসায় ঈদ উপহার নিয়ে বিসিবি পরিচালক ও কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। মুক্তিযোদ্ধা যুব কমান্ডের সৌজন্যে শুক্রবার (০৭ মে) বিকাল সাড়ে চারটার দিকে কিশোরগঞ্জ অফিসার্স ক্লাবে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ঈদ উপহার বিতরণ করেন তিনি। এ সময় করোনা রোগীদের ২৪ ঘন্টা সার্ভিস দেয়ার জন্য একটি এ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা চালু করা হয়।

ঈদ উপহার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মাসাউদ, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল কাদির মিয়া, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক আনোয়ার কামাল, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলীগ নেতা বাছির উদ্দিন রিপন, যুুবলীগ নেতা খায়রুল মোল্লা নোমানী, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির শিবলী, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লুৎফুর রহমান নয়ন, ছাত্রলীগ নেতা সোলেমান প্রমুখ। এছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিসিবি পরিচালক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু বলেন, ২০৬ জনকে ঈদ উপহার দেয়া হয়েছে। ১৮ কেজির প্রতি বস্তায় ১০ কেজি চাল, ১ লিটার তেল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি মুড়ি, ১ কেজি লবন, ২ কেজি পেঁয়াজ দেয়া হয়েছে। শুধুমাত্র করোনা রোগীদের জন্য একটি এ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা করা হয়েছে যা ২৪ ঘন্টাই সার্ভিস দিবে।

তিনি সমাজের বিত্তবানদের করোনাকালীন সময়ে গরিব দুঃখী মেহনতি শ্রমিক মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান।


আরও পড়ুন