ভৈরব - 2 weeks ago

ভৈরবে দুইজনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ভৈরবে ছয় ঘন্টার ব্যবধানে পুলিশ দুইজনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

গতকাল সোমবার রাত ৮ টায় শহরের চন্ডিবের এলাকা থেকে ওয়ার্কশপ ব্যবসায়ী মোঃ হেলিম মিয়া (৬৮) ও রাত ২ টায় উপজেলার শিমুলকান্দি গ্রামের বৃদ্ধ জুহুরা বেগমের (৬০) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

দুজনই তাদের বাসার রুমে গলায় ফাঁসি লাগিয়ে আত্মহত্যা করে বলে পুলিশ জানায়।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ব্যবসায়ী হেলিম মিয়া ব্যবসায় ঋনগ্রস্থসহ নানা কারনে কিছুদিন যাবত হতাশায় ছিল। গতকাল সোমবার দুপুরে তিনি খাওয়ার পর বিছানায় ঘুমাতে যান। বিকেল ৬ টায় তার স্ত্রী তাকে ঘুম থেকে ডাকতে গিয়ে দেখেন তিনি ফ্যানের সাথে দড়ি দিয়ে ঝুলে আছে। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

বৃদ্ধ জুহুরা বেগম সোমবার রাত ১০ টায় খাওয়ার পর তার রুমে গিয়ে ঘুমাতে যান। রাত ১ টায় তার পুত্রবধূ বাথরুমে যাওয়ার সময় জানালা দিয়ে দেখেন তার শ্বাশুড়ি রুমের উচুঁ জানায় রশি দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে। এসময় বাসার পরিবারের সবাইকে ঘটনা জানালে রুমের দরজা ভেংগে তাকে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নামানোর পর দেখা যায় সে মারা গেছে । পরে পুলিশকে ঘটনা জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

সূত্র জানায়, জুহুরা বেগম কয়েকদিন যাবত পারিবারিক বিষয় নিয়ে ছেলেদের সাথে ঝগড়া করে। পুলিশের ধারনা একারনে তিনি রাগে ক্ষোভে আত্মহত্যা করেছে।

ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) মোঃ শাহিন জানান, হেলিম মিয়ার পরিবারের অনুরোধে তার লাশ বিনা ময়না তদন্তে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। জুহুরা বেগমের দুই ভাই অভিযোগ করেছে তার ছেলেদের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে সে রাগ করে আত্মহত্যা করে। একারনে তার লাশ আজ মঙ্গলবার দুপুরে কিশোরগন্জে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়। দুটি ঘটনায় থানায় দুটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।


আরও পড়ুন