কুলিয়ারচরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ, যুবক আটক

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে চাঞ্চল্যকর স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ মামলার আসামি ধর্ষক সাইফুল মিয়া (২০) কে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। সোমবার (১৪ জুন) ভোররাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া উপজেলার আমুদাবাদ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা করা হয়।

ধর্ষক সাইফুল কিশোরগঞ্জ জেলার কুলিয়ারচর উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের নাপিতের চর গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে।

র‌্যাব-১৪ ভৈরব ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিউদ্দীন মোহাম্মদ যোবায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, কুলিয়ারচর উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়ন আব্দুল হামিদ ভূইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের  নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর সাথে সাইফুল মিয়ার ডিস বিল সংগ্রহের কাজ করতে গিয়ে পরিচয় হয়।

প্রতিদিনের ন্যায় গত শনিবার (১২ জুন)  সকালে ভিকটিম প্রাইভেট পড়ার শেষে পায়ে হেঁটে বাড়ীর উদ্দেশ্যে রওনা হলে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কুলিয়ারচর উপজেলার চরপাড়া গ্রামের চিত্তন এর বাড়ী সংলগ্ন পূর্ব পাশের রাস্তা হতে মুখে হাত দিয়ে চেপে ধরে রাস্তার পাশের জংলায় নিয়ে সাইফুল তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ঘটনার বিষয়ে কুলিয়ারচর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়।

মামলা দায়েরের পর পরই র‌্যাবের গোয়েন্দা সদস্যরা ঘটনাটি অধিকতর গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে ঘটনার ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং আসামি গ্রেপ্তারে তৎপর হয়।

পরবর্তীতে আসামির অবস্থান নির্ণয় করে সোমবার (১৪ জুন) ভোররাত সাড়ে ৩টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া থানাধীন আমুদাবাদ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ধর্ষণকারী সাইফুল মিয়াকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামি র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করে।


আরও পড়ুন