থেমে যাচ্ছে ভয়েস অব আমেরিকার ‘বাংলা কণ্ঠ’

রেডিও দর্শক দিনকে দিন কমছে। আবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বাড়ছে হুহু করে। এই পরিস্থিতিতে ভয়েস অব আমেরিকার (ভিওএ) স্মৃতিবিজড়িত বাংলা রেডিও’র কার্যক্রম মঙ্গলবার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, আসাম এবং ত্রিপুরায় ৬৩ বছর ধরে খবর দিয়ে আসছিল রেডিওটি।

পিটিআই জানিয়েছে, আগামী ১৭ জুলাই থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে রেডিওটি বন্ধ হবে।

রেডিও বন্ধ হলেও সার্ভিসটির টেলিভিশন এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কনটেন্ট পরিধি আরও বিস্তৃত হবে। ভিওএ বাংলা’র যোগাযোগমাধ্যমে সপ্তাহে ১৬ মিলিয়ন দর্শক যুক্ত থাকায় মাধ্যমটির কার্যক্রম বাড়ানো হচ্ছে।

ভিওএ’র ভারপ্রাপ্ত প্রোগ্রামিং ডিরেক্টর জন লিপম্যান বিবৃতিতে বলেছেন, ‘১৯৫৮ সালে যখন ভিওএ বাংলা চালু হয়, তখন বাংলাদেশ ছিল পূর্ব পাকিস্তানের অন্তর্গত। সামরিক আইনের কারণে এই অঞ্চলে ওই সময় কোনো টেলিভিশন কিংবা প্রাইভেট রেডিও ছিল না।’

‘স্বাধীন সংবাদ এবং খবরের জন্য সীমান্তের বাইরে থেকে ভিওএ-এর শর্টওয়েভ রেডিও ট্রান্সমিশন ছিল বাংলা ভাষাভাষী মানুষের লাইফলাইন।’

সংবাদমাধ্যমটিতে গত বছরের তুলনায় এবার টুইটারে মানুষের সম্পৃক্ততা বেড়েছে ৫৪ শতাংশ। একই সময়ে ইনস্টাগ্রামে ভিডিও ভিউ বেড়েছে ২৭৪ শতাংশ।

লিপম্যান বলছেন, ‘বাংলা ভাষার মানুষের জন্য এখন অনেক টেলিভিশন এবং রেডিও আছে। বাংলাদেশে অনলাইন খবরের চাহিদা বাড়ছে। ভিওএ বাংলার দর্শকেরা যেখানে বেশি সক্রিয়, সেদিকেই আমরা নজর দিচ্ছি।’

কার্যক্রম বন্ধ হওয়ার এই দিনগুলোতে স্মৃতিবিজড়িত পুরোনো অনুষ্ঠান সম্প্রচার করবে ভিওএ বাংলা। ১৯৫৮ সালের পর থেকে বাংলাদেশে কীভাবে পরিবর্তন এসেছে সেসব তুলে ধরা হবে।


আরও পড়ুন