দেশে পৌঁছেছে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা

বাংলাদেশের জন্য জাপানের উপহার হিসেবে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২ লাখ ৪৫ হাজার ২০০ ডোজ টিকা ঢাকায় পৌঁছেছে। আজ শনিবার বিকেল ৩টা ১৫ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এই টিকার চালান পৌঁছায়।

টিকার চালান দেশের আসার পর বিমানবন্দরে তা গ্রহণ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন ও ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি টিকা। এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা খুবই আনন্দিত যে আমাদের বন্ধুপ্রতীম দেশ জাপান ২ লাখ ৪৫ হাজার অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দিচ্ছে। আর আগামী শুক্রবার এর দ্বিগুণের বেশি দেবে। সর্বমোট তারা ৩০ লাখের বেশি টিকা দেবে। আগে বলেছিল ২৯ লাখ দেবে। তারপর আরও দেড় লাখের মতো যোগ হয়েছে। এ জন্য আমরা জাপান সরকারকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই।’

জাপান বাংলাদেশকে কয়েক ধাপে ২৯ লাখ অক্সফোর্ড আ্যস্ট্রাজেনেকার টিকা দেবে। আজ এই টিকার প্রথম চালান দেশে পৌঁছাল। করোনা টিকার বৈশ্বিক উদ্যোগ কোভ্যাক্সের আওতায় জাপান বাংলাদেশকে এ টিকা দিচ্ছে জাপান।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন্স অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন্স- গ্যাভির সমন্বয়ে গড়ে ওঠা বৈশ্বিক উদ্যোগ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন্স গ্লোবাল অ্যাকসেস ফ্যাসিলিটি (কোভ্যাক্স)। কোভ্যাক্স থেকে আগে বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশকে টিকা দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল।

এ হিসাবে বাংলাদেশের ৬ কোটি ৮০ লাখ ডোজ পাওয়ার কথা। কোভ্যাক্সে দুইভাবে টিকা সংগ্রহ করা হয়। বিশ্বের বিভিন্ন ধনী দেশ তাদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কোভ্যাক্সকে টিকা কিনে দেয় অথবা টিকা কেনার টাকা পরিশোধ করে।


আরও পড়ুন