বিয়ের আসর থেকে পালালেন বর, কনের মাকে জরিমানা

করোনা মহামারির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করে বরিশালের আগৈলঝাড়ায় বাল্য বিয়ের আয়োজন করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। এ সময় ম্যাজিস্ট্রেটকে দেখে বাল্য বিয়ের আসর থেকে পালিয়ে গেছেন বর ও বরযাত্রী। পরে কনের মাকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট।

আজ রোববার দুপুরে উপজেলার বাগধা ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রামে মেয়ের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আগৈলঝাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবুল হাশেম এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, উপজেলার বাগধা ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রামের কাজল মিয়া ও নার্গিস বেগমের অষ্টম শ্রেণির মাদ্রাসা পড়ুয়া মেয়ের সঙ্গে পাশের কোটালীপাড়া উপজেলার কালারবাড়ি গ্রামের কবির খানের ছেলে জাহিদুল ইসলামের বিয়ে ঠিক হয়। নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী আজ দুপুরে কনের বাড়িতে আসেন বরযাত্রীরা।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবুল হাশেম, উপপরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দিনকে সঙ্গে নিয়ে বিয়ে বাড়িতে হাজির হন। ইউএনও এবং পুলিশ দেখে বর জাহিদুল ইসলাম ও মেয়ের বাবা কাজল মিয়াসহ বরযাত্রীরা পালিয়ে যান।

পরে ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবুল হাশেম করোনা মহামারির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য এবং বাল্য বিয়ের আয়োজন করার অপরাধে মেয়ের মা নার্গিস বেগমকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেন। একই সঙ্গে পূর্ণ বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে দেবে না মর্মে কনের মা নার্গিস বেগম আদালতের কাছে মুলচেকা দেন।


আরও পড়ুন