বুস্টার শটের চেয়ে টিকার প্রথম ডোজ বেশি গুরুত্বপূর্ণ

সম্পূর্ণ টিকা পেয়েছেন এমন মানুষদের বুস্টার শট নয় বরং যারা টিকা পাননি তাদের প্রথম ডোজ দেওয়ার ব্যবস্থাই কমাতে পারে ডেল্টার মতো করোনাভাইরাসের ধরনের বিস্তার। বুধবার এ তথ্য জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

জেনেভায় সংস্থার নিয়মিত ব্রিফিংয়ে ডব্লিউএইচও’র মহাপরিচালক টেড্রোস অ্যাধনম গেব্রেইয়েসিস বুধবার জানান, সংস্থাটি গত সপ্তাহে কেভিড-১৯ এর বুস্টার শট সংক্রান্ত তথ্য নিয়ে বিতর্ক করতে সারা বিশ্ব থেকে ২০০০ বিশেষজ্ঞকে একত্রিত করেছিল।

ওই আলোচনার আলোকে তিনি বলেন, এটা স্পষ্ট যে বুস্টার শট দেওয়ার আগে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া এবং সবচেয়ে দুর্বলদের রক্ষা করা গুরুত্বপূর্ণ।

আগস্টের শুরুর দিকে প্রধান ধনী দেশসহ অন্যদের উদ্দেশে এ বিষয়ে আহ্বান জানায় স্বাস্থ্য সংস্থা। সেখানে বলা হয়, যে সব দেশ তাদের স্বাস্থ্যকর্মী ও ঝুঁকিপূর্ণ সম্প্রদায়কে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়ার সুযোগ পায়নি, তাদের সঙ্গে টিকার আরও ডোজ ভাগ করে নেওয়ার জন্য উৎসাহিত করতে বুস্টার শটের ওপর একটি অস্থায়ী স্থগিতাদেশ যেন আনা হয়।

গেব্রেইয়েসিস বলেন, মহামারির এই সময় নাগাদ ১০টি দেশ বিশ্বের মোট টিকার ৭৫ শতাংশ ব্যবহার করেছে, যখন নিম্ন-আয়ের দেশগুলো তাদের জনসংখ্যার মাত্র ২ শতাংশকে টিকা দিতে পেরেছে।

এ দিকে পরিসংখ্যান ভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার জানায়, এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে ৪৪ লাখ ৫ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে। ২১ কোটির বেশি মানুষের শরীরে ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।


আরও পড়ুন