করিমগঞ্জ - September 23, 2021

প্রয়াত আব্দুর রশিদ ভূইয়া স্মরণে শোকসভা

করিমগঞ্জ উপজেলা শিল্পকলা পরিষদ মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় আলোক পাঠাগার আয়োজিত স্মরণ সভায় কবি, শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংস্কৃতিক কর্মীরা প্রয়াত আব্দুর রশিদ ভূইয়ার জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা করেন।

রাজনীতিবিদ ও অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক একিউএম হারুন অর রশিদ, কবি সালেহ আহমেদ, শিল্পী কফিল আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু আনিস ফকির, নাট্যজন সাইদুর রহমান ফুল মিয়া, ছড়াকার হারুন আল রশিদ, নাট্যাভিনেতা হারুন অর রশিদ, কবি আলী আকবর, ছড়াকার শাহজাহান কবির, আব্দুল কাদির হিরো, মোখলেসুর রহমান দিনাজ, আনোয়ারুল কিবরিয়া, রকিব ওমি ও তৌফিক আনসারীর বক্তব্যে তাঁর বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক ও সংগ্রামী জীবনের কথা উঠে আসে।

আব্দুর রশিদ ভূইয়া একাধারে প্রগতিশীল রাজনীতিক, সাংবাদিক, কলামিস্ট, নাট্যকার, লোক গবেষক, জনপ্রতিনিধি ও দক্ষ সংগঠক ছিলেন।

সাংবাদিক হাবিবুর রহমান বিপ্লবের সঞ্চালনায় বক্তাগণ তাঁর স্মৃতিচারন করতে গিয়ে বিভিন্ন সময়ের আন্দোলন সংগ্রামের কথা, নাটকের সংলাপ, তাকে নিয়ে লেখা কবিতা থেকে পাঠ করেন।

প্রয়াত আব্দুর রশিদ ভূইয়া উপজেলা সাধারণ পাঠাগার, করিমগঞ্জ প্রেসক্লাব ও শিল্পকলা পরিষদের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ছিলেন।

এ স্মরণ সভা অনুষ্ঠানটি উপজেলা সাধারণ পাঠাগারে করার প্রস্তাব করলে সাধারণ সম্পাদকের অসহযোগিতায় সম্ভব হয়নি জানালে শোক সভা থেকে উপজেলা সাধারণ পাঠাগারের সম্পাদক জাকির হোসেন রাসেলের এহেন ব্যক্তি আচরণের জন্য নিন্দা জানানো হয়।

আব্দুর রশিদ ভূইয়া কে স্মরণ করতে গিয়ে তার রচিত ‘মায়ের কলঙ্ক’ নাটকে নায়ক ‘বকুল’ চরিত্রে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য প্রয়াত আফতাব হোসেন চেনু চৌধুরী কে স্মরণ করা হয়। বক্তাগণ সদ্য প্রয়াত নাট্যজন যতীন বিশ্বাস, সংগঠক আতাউর রহমান মিল্টনেরও স্মৃতিচারণ করে তাদের আত্মার শান্তি কামনা করেন।

গত জুলাই মাসের প্রথম দিন ভোর বেলায় সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আব্দুর রশিদ ভূইয়া ৬৭ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত তিনি প্রগতিশীল চিন্তা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে লালন করে গেছেন। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালে বিচারাধীন যুদ্ধপরাধ মামলার তিনি ছিলেন একজন অকুতোভয় সাক্ষী।

চিন্তা চেতনায়, মেধা মননে এক অনন্য ব্যক্তিত্বের রশিদ ভূইয়া ‘রাশিদ ভূইয়া’ নামে সমধিক পরিচিত ছিলেন।

আব্দুর রশিদ ভূইয়ার ছেলে শাহরিয়ার রশিদ অন্তর তার পিতার আত্মার শান্তি কামনায় সকলের প্রতি আহ্বান জানান। মানুষ ভুলের উর্ধ্বে নয় উল্লেখ করে তিনি তার পিতার ভুল ত্রুটির জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করা হয়।


আরও পড়ুন