অ্যাটলেটিকোর মাঠেও ধরাশায়ী বার্সা

দুঃসময় যেন পিছুই ছাড়ছে না বার্সেলোনার। লিগে একের পর এক হারে পয়েন্ট টেবিলের নিচের দিকে যাচ্ছে কাতালানরা। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে কাছেও হেরেছে রোনাল্ড কোম্যানের দল। প্রথমার্ধের দুই গোল হজম করেও ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি বার্সা। প্রতিপক্ষের মাঠে করুণ পরাজয়ে টেবিলের দশম স্থানে নেমে গেছে কাতালানরা।

শনিবার রাতে ঘরের মাঠে ২-০ গোলের ব্যবধানে জয় পয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। থমাস লেমার গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান বাড়ান লুইস সুয়ারেজ। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে স্বাগতিকদের বিপক্ষে টানা পাঁচ ম্যাচ জয়শূন্য রইলো বার্সেলোনা, এর তিনটিতেই পরাজয়। এর মধ্যে লা লিগায় চার ম্যাচে দুটি করে হার ও ড্র। আর ২০২১ স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে ৩-২ গোলে হেরেছিল কাতালান ক্লাবটি।

শুরু থেকে অনেকটা ধীর গতির ফুটবল খেলতে থাকে দুই দলই। ম্যাচের ২৩তম মিনিটে উল্লেখযোগ্য সুযোগ পেয়েই অ্যাটলেটিকোকে এগিয়ে নেন লেমার। বাম পাশ থেকে লুইস সুয়ারেজের বাড়ালো বল পেয়েই ফাঁকায় দাঁড়িয়ে দারুণভাবে বল জালে জড়ান তিনি।

২৭তম মিনিটে সমতায় ফিরতে পারতো বার্সেলোনা। ডি-বক্সের সামনে বল পেয়েই বুলেট গতির শট নেন ফিলিপে কৌতিনহো। কিন্তু তার শট অল্পের জন্য বা পাশের পোস্টের বাইরে দিয়ে যায়। পরের মিনিটে ব্যবধান বাড়াতে পারতেন সুয়ারেজ। ফাঁকায় বল পেয়েও দূরের পোস্টের বাইরে দিয়ে শট নেন তিনি।

বিরতির খানিক ব্যবধানে আগে দ্বিগুণ করেন সুয়ারেজ। লেমার ক্রস পেয়ে ডি-বক্সের ভেতর ঢুকে পড়েন তিনি। সেখান থেকে গোলরক্ষক ও এক ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে সহজে বল জালে পাঠান উরুগুয়ান এই স্ট্রাইকার।

বিরতির পর আরো ধীর হয়ে উঠে আক্রমণ। তেমন উল্লেখযোগ্য কিছুই করতে পারেনি কেউ। সমতায় ফেরার চেষ্টা কিংবা ব্যবধান বাড়ানোর বাড়তি তাড়না তেমন চোখে পড়েনি। আক্রমণেরই ছিল না ধার। ২-০ গোলের পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।


আরও পড়ুন