ডিসেম্বরের মধ্যে বাংলাদেশের ৪০ শতাংশ মানুষ টিকা পাবে

করোনা মোকাবিলায় কোভ্যাক্স জোটের আওতায় আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে বাংলাদেশের ৪০ শতাংশ মানুষকে টিকার আওতায় আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক ডা. টেড্রোস অ্যাডহানম গেব্রিয়েসুস। গতকাল শুক্রবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এ প্রতিশ্রুতি দেন। স্থানীয় সময় বিকালে অনুুষ্ঠিত এ বৈঠক শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী গণমাধ্যমে একটি বিবৃতি পাঠিয়েছেন।

বিবৃতিতে মন্ত্রী বলেন, ডব্লিউএইচও মহাপরিচালকের সঙ্গে তার দ্বিপাক্ষিক বৈঠক ফলপ্রসূ হয়েছে। বৈঠকে ডব্লিউএইচও মহাপরিচালক প্রথম পর্যায়ে ডিসেম্বরের মধ্যেই বাংলাদেশে কোভ্যাক্স সুবিধার আওতায় ২০ শতাংশ মানুষের জন্য টিকা পাঠানোর আশ্বাস দেন। কিন্তু দেশের জনসংখ্যা অনুযায়ী আমরা ৪০ ভাগ মানুষের জন্য টিকা দেওয়ার কথা জানাই। এ সময় তিনি পর্যায়ক্রমে ৪০ শতাংশ মানুষের জন্য টিকা পাঠাতে সম্মত হয়েছেন। আশা করছি, ডিসেম্বরের মধ্যেই কোভ্যাক্স সুবিধার আওতায় দেশের ২০ ভাগ মানুষের জন্য টিকা পাওয়া যাবে এবং খুব অল্প সময়েই ৪০ ভাগ মানুষের জন্য টিকা নিশ্চিত হবে। পাশাপাশি অন্যান্য মাধ্যম থেকে টিকা কেনার কাজটিও চলমান থাকবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও জানান, বাংলাদেশে টিকা উৎপাদনের জন্য কারিগরি সহায়তারও আশ্বাস দিয়েছেন ডব্লিউএইচও মহাপরিচালক। পাশাপাশি ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের টিকা পরীক্ষার ক্যাপাসিটি অব দ্য ন্যাশনাল কন্ট্রোল ল্যাবরেটরির অ্যাক্রেডিটেশন প্রদানের কার্যক্রম ত্বরান্বিত করতে প্রয়োজনীয় সহযোগিতার আশ্বাস দেন তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, গত দেড় বছরে কোভিড মোকাবিলায় বাংলাদেশ কী উদ্যোগ নিয়েছে সে বিষয়ে ডব্লিউএইচও প্রধানের কাছে বিস্তারিত তুলে ধরেন। এ সময় ডা. গেব্রিয়েসুস কোভিড মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করেন। এ ছাড়া স্বাস্থ্যমন্ত্রী টিকা প্রদানে বাংলাদেশের সফলতার কথা উল্লেখ করেন এবং দুটি বড় পরিসরে সফল টিকা ক্যাম্পেইনের বিষয়টি তুলে ধরেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডা. গেব্রিয়েসুস টিকা প্রদানে বাংলাদেশ নজির সৃষ্টি করেছে বলে জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডব্লিউএইচও মহাপরিচালককে কোভ্যাক্স সুবিধার আওতায় বাংলাদেশকে আরও বেশি পরিমাণে ফাইজার ও মডার্নার টিকা দিতে অনুরোধ জানান। বৈঠকে ডব্লিউএইচওর গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। জাহিদ মালেকের সঙ্গে ছিলেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেছা বেগম, স্বাস্থ্যমন্ত্রীর একান্ত সচিব কামরুল হাসান, উপসচিব মো. সাদেকুল ইসলাম।

অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও আট লাখ টিকা দেশে কোভ্যাক্স সুবিধার আওতায় জার্মানি থেকে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও সাত লাখ ৯০ হাজার টিকা দেশে এসে পৌঁছেছে। গতকাল বিকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এ টিকার চালান এসে পৌঁছায়। বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. মাইদুল ইসলাম প্রধান। এসব টিকা গ্রহণে বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মানির রাষ্ট্রদূত আখিম ট্রোস্টার, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব লোকমান হোসেন মিয়া প্রমুখ।


আরও পড়ুন