ব্রাজিলকে রুখে দিয়ে বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা

লাতিন আমেরিকা অঞ্চল থেকে সবার আগে বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করেছিল ব্রাজিল। এবার সেই ব্রাজিলকে রুখে দিয়ে দ্বিতীয় দল হিসেবে কাতারের টিকিট কাটলো আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ফিরতি পর্বে ঘরের মাঠে গোল শূন্য ড্র করে আলবিসেলেস্তারা। তাতেই এক পয়েন্ট আদায় করে বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করলো লিওনেল মেসিরা।

আজ বুধবার ভোরে আর্জেন্টিনার ঘরের মাঠে সান হুয়ানে ড্র করে সন্তুষ্ট ব্রাজিলের কোচ তিতে। তবে পুরো ম্যাচ জুড়ে যে পরিমাণ ফাউল হলুদ কার্ড হয়েছে তাতে খেলার সৌন্দর্য নষ্ট হয়েছে। উভয় দল মিলে ফাউল করেছে ৪২টি।

প্রথম দেখায় ব্রাজিলের মাঠে খেলা মাত্র পাঁচ মিনিট হয়েছিল এরপর দেশটির স্বাস্থ্যকর্মীদের আপত্তিতে ম্যাচটি স্থগিত হয়ে যায়। এবার দ্বিতীয় দেখায় ম্যাচের ফল অমিমাংসিত রয়ে গেল। তাতে টানা ২৭ ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ড ধরে রেখেছে আর্জেন্টিনা। লিওনেল স্কোলানিদের সবশেষ হার ২০১৯ কোপার সেমিফাইনালে ব্রাজিলের বিপক্ষে।

ম্যাচের শুরু থেকে দুই দলই আক্রমণ পাল্টা আক্রমণ করে। কিন্তু কেউই ঠিকঠাক রক্ষণ ভেদ করতে পারেনি। দুই দলের গোলরক্ষকরা বেশিরভাগ সময় ছিল রক্ষিত। ১৭তম মিনিটে ডি-বক্সের ভেতর সুযোগ পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। সাত মিনিটের ব্যবধানে লিওনেল মেসির জোড়ালো শট ঠেকান ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার দানিলো।

৩৫তম মিনিটে আর্জেন্টিনার ডি-বক্সে ডিফেন্ডার ওতামেন্দির হাতের আঘাতে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রাফিনিয়ার মুখ দিয়ে রক্ত ঝরতে দেখা যায়। ব্রাজিলের পক্ষ থেকে পেনাল্টির জোরালো আবেদন উঠলেও ভিএআরেও তাদের আশা পূরণ হয়নি। এভাবেই প্রথমার্ধ গোল শূন্যে শেষ হয়। বিরতির পর থেকে আবারও উভয় দল আক্রমণ পাল্টা আক্রমণের পথ বেছে নেয়। কিন্তু ফাউলের ছড়াছড়িতে খেলার সৌন্দর্য খুঁজে পাওয়া যায়নি। নির্ধারিত সময়ে কোনো গোল না হওয়ায় ড্র করে মাঠ ছাড়ে লিওনেল স্কোলানির দল।

এ নিয়ে ১৩ ম্যাচে ১১ জয় ও দুই ড্রয়ে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে ব্রাজিল। সমান ম্যাচে আট জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে আর্জেন্টিনা। লাতিন অঞ্চল থেকে এই দুই দলই কাতার বিশ্বকাপের জন্য বিবেচিত হয়েছে।


আরও পড়ুন