শেষ সময়ের পেনাল্টিতে আবারও জামালদের স্বপ্নভঙ্গ

চার জাতি টুর্নামেন্টে মালদ্বীপের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয়ে ফাইনালের স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ। শেষ ম্যাচে কোনোরকম ড্র করলেই ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত। কিন্তু সেই স্বপ্নভঙ্গ হল শ্রীলঙ্কার কারণে। শেষ মুহূর্তে পেনাল্টি থেকে গোলে বাংলাদেশকে ছিটকে দিয়ে ফাইনালে উঠে গেছে শ্রীলঙ্কা। শিরোপার লড়াইয়ে স্বাগতিকদের প্রতিপক্ষ সেশেলস।

শ্রীলঙ্কার রেসকোর্স স্টেডিয়ামে ২-১ গোলে বাংলাদেশকে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছেছে লঙ্কানরা।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলছিল স্বাগতিকরা। পাল্টা আক্রমণ চালাচ্ছিলেন বাংলাদেশ দলের ফুটবলাররাও। কিন্তু জালের ঠিকানা খুঁজে পাচ্ছিল না কোনো দলই। ২৫ মিনিটের মাথায় ডি বক্সের বাইরে থেকে নেয়া দুর্দান্ত এক শট ঠেকিয়ে দেন বাংলাদেশের গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো। কিন্তু ফিরতি শটে জিকোকে পরাস্ত করে জালের ঠিকানা খুঁজে নেন ওয়াসিম রাজিক।

ম্যাচের ৩৩ মিনিটে জামাল ভুঁইয়ার কর্নার থেকে নেয়া শট ঠেকাতে গিয়ে ডি বক্সে ফাউল করে বসেন লঙ্কান ডিফেন্ডার। যার বদৌলতে লাল কার্ড দেখে ১০ জনের দলে পরিণত হয় স্বাগতিকরা। সেই সঙ্গে বাংলাদেশ পায় পেনাল্টি। কিন্তু ম্যাচের ৩৪ মিনিটে পাওয়া সেই পেনাল্টি মিস করে সমতায় ফেরার সুযোগ হারান ডিফেন্ডার তপু বর্মণ।

আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে ১-০ স্কোরলাইনে প্রথমার্ধ শেষ হয়।

ম্যাচের ৭১ তম মিনিটে লাল সবুজের শিবিরে ত্রাতা হয়ে আসেন জুয়েল রানা। ডি বক্সের ভেতর থেকে পাওয়া পাসকে ঠেলে দিয়ে পরাস্ত করেন লঙ্কান গোলরক্ষককে। সেই সঙ্গে দলকে এনে দেন স্বস্তির সমতা। এরপর বেশ কিছু সুযোগ এসেছিল জামালদের এগিয়ে যাওয়ার। কিন্তু রেসকোর্সের বাজে মাঠে তাল ধরে রাখতে খাবি খেতে হয় তাদের।

৯০ তম মিনিটে ডি বক্সে হ্যান্ড বলের সুবাদে পেনাল্টি পায় স্বাগতিকরা। সেখান থেকে দলের ও নিজের দ্বিতীয় গোল করে শ্রীলঙ্কার ফাইনাল নিশ্চিত করেন ওয়াসিম রাজিক। আর জামাল ভুঁইয়াদের আরেকটা শিরোপাস্বপ্ন ভঙ্গ হয়ে যায়।


আরও পড়ুন