করিমগঞ্জ - 2 weeks ago

করিমগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘর্ষ, নিহত ১

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে হামাল প্রতিহামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় একজন নিহত হয়েছে এবং ছয়জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশংকাজনক।

গত শুক্রবার উপজেলার নোয়াবাদ ইউনিয়নের সিংগুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় জামিল (৫০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হন। আহতরা হলেন- নাদিম (১৭), আলাল উদ্দিন (৪৮), বাচ্চু (৪২), মাজহার (১৮), হেলাল (৫৫) ও এরশাদ উদ্দিন (৩৮)। নিহত জামিল সিংগুয়া গ্রামের ইছমত মাষ্টারের ছেলে।

এলাকার লোকজন জানান, গত শুক্রবার ১৯ নভেম্বর দুপুরে সিংগুয়া গ্রামের মাবিয়ার ছেলে হামীম (১০) তার সমবয়সীদের নিয়ে সিংগুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে ক্রিকেট খেলছিল। এসময় প্রতিবেশী মিছির উদ্দিনের ছেলে আরজু মিয়া (৪০) হামীমসহ সকলকে মাঠে খেলতে নিষেধ করে। হামীম তার নিষেধ অগ্রাহ্য করে খেলতে থাকে। তখন আরজু ক্ষিপ্ত হয়ে হামীমকে উপর্যপুরি কিল ঘুষি মেনে আহত করে। পরে হামীমের মা মাবিয়া, ছেলের এ অবস্থা দেখে কয়েকজনকে নিয়ে আরজুর বাড়িতে যায় এবং ঘটনার প্রতিবাদ করে। প্রতিবাদ করলে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির ফাঁকে মাবিয়ার পক্ষের লোক আরজু প্রতি চড়াও হলে উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। আশপাশের লোকজন এসে ঘটনাটি সমাল দেন এবং উভয় পক্ষকে যার যার অবস্থানে ফেরত পাঠান। পরিস্থিতি সাময়িক শান্তিপূর্ণ থাকলেও ভেতর ভেতর আরজু পক্ষের লোকজন পাল্টা হামলার জন্য প্রস্তুতি নিতে থাকে। বড় কোনো সংঘর্ষের আশংকায় জামিল স্থানীয় মেম্বার ফারুকসহ আরও কয়েকজনদের নিয়ে আরজু পক্ষের সাথে আলোচনা করেন। এমনকি আরজুসহ প্রত্যেকের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে বিশেষ অনুরোধ ও মাবিয়ার পক্ষ থেকে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। আর সন্ধ্যার পরে বিষয়টি নিয়ে সামাজিকভাবে নিষ্পত্তি করবেন বলেও সবাইকে আশ্বস্ত করেন জামিল।

পরে বিষয়টি নিয়ে সন্ধ্যায় জামিল বাড়ির সামনে লোকজন নিয়ে আলোচনায় বসে। এসময় আবদুল্লাহ, মিলন, রাসেল ও আরজুর নেতৃত্বে শতাধীক হামলাকারী নিয়ে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অালোচনায়রত জামিলদের উপরে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে জামিলসহ আরও ছয়জন আহত হয়। আহতদের দুইজন কিশোরগঞ্জ সদর মেডিকেলে, তিনজন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও জামিলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন শনিবার ভোরে জামিল চিকিৎসারত অবস্থায় মারা যান।

এদিকে করিমগঞ্জ থানা পুলিশ পরিদর্শক শামছুল আলম সিদ্দিকী বলেন, শুনা মাত্রই ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়ন করি এবং আমি তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও পড়ুন