নড়াইলে হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

নড়াইল সদর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে মফি শেখ (২৮) হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। এ মামলায় অপর তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা করে জারিমানা, অনাদায়ে আরও ১ বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান এ আদেশ দেন।

নড়াইলের অতিরিক্ত পিপি নুর মোহাম্মদ বলেন, আসামিদের মধ্যে নড়াইল সদর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে জামিনুর রহমান মোল্লাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া লুৎফর রহমানের অপর সন্তান সাদ্দাম হোসেন শুভ, একই এলাকার মোকছেদ মোল্যার ছেলে সহিদ মোল্যা ও ছাকেম মোল্যার ছেলে সাত্তার মোল্যাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার অপর দুই আসামি আবেনুর খাতুন ও সাখায়েত হোসেনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা সকলে আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ২০১৬ সালের ১৮ জুলাই দুপুরে নড়াইলের ভবানীপুর গ্রামের কৃষক মফি শেখ তার শিশুপুত্রকে নিয়ে স্কুল থেকে উপবৃত্তির টাকা তুলে বাইসাইকেলযোগে বাড়িতে ফেরার পথে এলাকার মাথাভাঙ্গা নামক একটি সেতুর ওপর পৌঁছালে আসামিরা দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার ওপর হামলা করে।

গুরুতর আহত অবস্থায় মফি শেখকে নড়াইল সদর হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রেকসানা খাতুন ৬ জনকে আসামি করে নড়াইল সদর থানায় মামলা করেন। মামলায় ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এই রায় দেওয়া হয়েছে।


আরও পড়ুন