তাড়াইলে অটোরিকশা চালকের লাশ উদ্ধার

কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে পতিত জমি থেকে শাহ আলম (৩০) নামে এক অটোরিকশা চালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার রাউতি ইউনিয়নের ভাওয়াল এলাকায় পতিত জমি থেকে তার লাশটি উদ্ধার করা হয়। তিনি রাউতি ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে।

শাহ আলমের মামা জাকির হোসেন জানান, মঙ্গলবার দুপুরে বাড়ি থেকে অটোরিকশা নিয়ে বের হয় শাহ আলম। বাড়িতে ফিরতে দেরি হওয়ায় রাতেই তাকে খুঁজতে বের হয় তার স্বজনরা। তাকে না পেয়ে রাতভর তার ব্যবহৃত মুঠোফোনে ফোন দিলেও রিসিভ হয়নি। বুধবার সকালে তারা জানতে পারেন পার্শ্ববর্তী ভাওয়াল এলাকায় একটি পতিত জমিতে একটি লাশ পড়ে রয়েছে। পরে সেখানে গিয়ে লাশটি শাহ আলমের বলে শনাক্ত করেন স্বজনরা। লাশের খানিকটা দূরে ছিল অটোরিকশাটি। সড়কের পাশেই মোবাইল ফোনটি পড়েছিল। কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে, এ বিষয়ে কিছুই বলতে পারছেন না তিনি।

তাড়াইল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। তার শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।


আরও পড়ুন