‘স্লেজিং করা নিয়ে’ চবিতে ছাত্রলীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ

স্লেজিং তথা উত্ত্যক্ত করা নিয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) মধ্যরাতে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৩ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সোহরাওয়ার্দী হলের মোড়ে সিএফসি ও বিজয় গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার মধ্যরাত ১২টার দিকে বিজয় গ্রুপের নেতাকর্মীদের অনেকেই সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে ছিলেন। আর সিএফসি গ্রুপের নেতাকর্মীরা ছিলেন শাহ আমানত হলে। উভয় পক্ষের কাছেই রামদা ও লাঠিসোঁটা ছিল।

সংঘর্ষ শুরু হলে ইটপাটকেল নিক্ষেপ, পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। রাত ১টা পর্যন্ত এ সংঘর্ষ চলে।

বিজয় গ্রুপের নেতাকর্মীদের দাবি, রাত ১২টার দিকে বিনা উস্কানিতে সিএফসির নেতাকর্মীরা সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে এসে তাদের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করেন। পরে তাদের প্রতিহত করা হয়।

অন্যদিকে সিএফসির নেতাকর্মীদের দাবি, কয়েক দিন ধরে বিজয় গ্রুপের নেতাকর্মীরা তাদের ‘স্লেজিং’ করছেন। এর জবাব দিয়েছেন তারা।

জানা গেছে, ‘চুজ ফ্রেন্ডস উইথ কেয়ার (সিএফসি)’ ও ‘বিজয়’ দু’টি গ্রুপের নেতাকর্মীরাই শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীর অনুসারী।

ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। প্রক্টরিয়াল বডি সতর্ক আছে।’


আরও পড়ুন