জাতীয় - January 21, 2022

প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস সচিবের

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীনের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল মিসরের বন্দর নগরী আলেক্সজান্দ্রিয়ার ফ্রি জোন এলাকায় বাংলাদেশি মালিকানাধীন পোশাক শিল্প কারখানা ত্রিস্টার ও এলেক্স এ্যাপারেল পরিদর্শন করেন।

কারখানা দুটিতে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে মালিক / ব্যবস্থাপকদের সাথে মত বিনিময় কালে ব্যবস্থাপকগণ মিসরে বিভিন্ন পোশাক শিল্প কারখানায় কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীদের দক্ষতার ভূয়সী প্রশংসা করেন। তবে তাদের ভিসার মেয়াদ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে অত্যধিক ফি এবং সময়ের প্রয়োজন হয় মর্মে সচিবকে অবহিত করলে, তিনি কায়রোস্থ বাংলাদেশ দুতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) মুহাম্মদ ইসমাঈল হোসাইনকে এ বিষয়ে মিসরের জনশক্তি মন্ত্রণালয়ের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নের মাধ্যমে কূটনৈতিক তৎপরতা অব্যাহত রাখতে বলেন।

সচিব আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন এলেক্স এ্যাপারেলসে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের সাথে উক্ত কারখানাতেই কথা বলেন ও তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা মনোযোগ সহকারে শুনেন।

প্রবাসী কর্মীরা তাদের ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের সদস্যপদ কার্ড এর সফট কপির পরিবর্তে হার্ড কপি অর্থাৎ স্মার্ট কার্ড সরবরাহ ও মিসর হতে বাংলাদেশে বৈধ পথে টাকা (রেমিটেনন্স) পাঠানোর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করেন।
সচিব আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, নতুন করে যারা সদস্যপদ অন্তর্ভুক্তি হবেন তাদেরকে মিসরে বাংলাদেশ দুতাবাসের শ্রম কল্যাণ উইং থেকে স্মার্ট কার্ড সরবরাহ করতে দুতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) মুহাম্মদ ইসমাঈল হোসাইনকে দিক নির্দেশনা দেন ও প্রবাসীদের উপার্জিত অর্থ বাংলাদেশে তাদের পরিবারের কাছে বৈধ পথে পাঠানোর জন্য রাষ্ট্রদূতের পরামর্শ ক্রমে, মিসরের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাথে যোগাযোগ করে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন প্রেরণের জন্য বলেন।

গত রবিবার (১৬ই জানুয়ারি ২০২২ ) প্রতিনিধি দলটি কায়রোস্থ বাংলাদেশ দুতাবাস পরিদর্শন করেন এবং দেশটিতে শ্রমবাজারের সম্ভাবনা বিষয়ে দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম এর সাথে দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে নিয়ে আলোচনা করেন।

রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম মিসরে বাংলাদেশি শ্রম বাজারের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন ও সচিবকে অবহিত করেন।

বৈঠকে বাংলাদেশ থেকে আগত প্রতিনিধিরা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রথম সচিব (শ্রম) মুহাম্মদ ইসমাইল হোসাইন, তৃতীয় সচিব আতাউল হক ও দূতাবাসের অন্যান্য কর্মকর্তাগন। প্রতিনিধি দলের অন্যান্য সদস্যরা হলেন, উপ সচিব সুষমা সুলতানা, উপ সচিব সন্দীপ কুমার সরকার ও প্রবাসী কল্যান ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর এপিএস রাশেদুজ্জামান।


আরও পড়ুন