বাড়ি ফিরলেন ‘কবর থেকে উঠে আসা’ সেই বৃদ্ধা

কথিত ৯ মাস পর কবর থেকে উঠে আসা ভাইরাল হওয়া সেই নারী বাড়ি ফিরে গেছেন। তার প্রকৃত নাম শেফালী সরদার। মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে তিনি খুলনার দৌলতপুর থেকে পথ হারিয়ে ট্রেনে করে গাইবান্ধায় আসেন। গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশ শুক্রবার সকালে তাকে আশ্রয় দেওয়া দৌলতপুরের বাসিন্দা সুফিয়া বেগমের কাছে হস্তান্তর করেন।

এ ব্যাপারে গাইবান্ধা সদর থানার ওসি মাসুদুর রহমান জানান, ‘বৃদ্ধার খবর পেয়ে তাকে নিতে গাইবান্ধা সদর থানায় আসেন খুলনার দৌলতপুরের বাসিন্দা সুফিয়া বেগম। দৌলতপুরে খোঁজখবর নিয়ে নিশ্চিত হওয়ার পর শেফালী সরদার নামে ওই বৃদ্ধা নারীকে সুফিয়া বেগমের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। বৃদ্ধা ওই নারী একজন বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী। সরকার থেকে তাকে প্রতি মাসে প্রতিবন্ধী ভাতাও দেওয়া হয়’।

শেফালী সরদারকে আশ্রয় দেওয়া সুফিয়া বেগম বলেন, বৃদ্ধার নাম বাছিরন বেওয়া নয়। তার প্রকৃত নাম শেফালী সরদার। শেফালী সরদারের আত্মীয়স্বজন কেউ নেই। তার নিজের কোনো ঘরবাড়িও নেই। তার বাড়িতে দীর্ঘদিন তিনি আশ্রিতা হিসেবে থাকতেন। প্রতিবন্ধী বলে তার নামে প্রতিবন্ধীর কার্ডও দিয়েছে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে।

উল্লেখ্য, বৃদ্ধার বাড়ি খুলনার দৌলতপুরে, ঠিক এমন তথ্যের ভিত্তিতে গাইবান্ধা সদর থানার ওসি তদন্ত ওয়াহেদুল ইসলাম মুঠোফোনে খুলনার দৌলতপুরে আশ্রিতা সুফিয়া বেগমের গ্রামের চেয়ারম্যান-মেম্বারের কাছে বৃদ্ধা শেফালী সরদারের পরিচয়ের সত্যতা নিশ্চিত হন।


আরও পড়ুন