হত্যা-গুম-জেল-জুলুম চালিয়েও বিএনপিকে দমানো যায়নি : প্রিন্স

অনিবার্য পতন ঠেকাতে আওয়ামী লীগ সন্ত্রাস, নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে ও হামলা-মামলা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স। শনিবার (১৪ মে) দুপুরে কিশোরগঞ্জের পৌর শহরের রথখোলা মাঠে জেলা বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের ওপর হামলা-মামলার প্রতিবাদে দেশব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশের অংশ হিসেবে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স বলেন, সরকার ১৪ বছর হত্যা, গুম, জেল-জুলুম চালিয়েও বিএনপিকে দমাতে পারেনি। পতনের আগ মুহূর্তেও পারবে না। এবার আঘাত এলে প্রত্যাঘাত করা হবে। তিনি দেশ, জাতি, গণতন্ত্রের বৃহত্তর স্বার্থে সরকারের একগুঁয়েমি ও দমন-নিপীড়ন বন্ধের আহ্বান জানান।

এ সময় জেলা বিএনপির সভাপতি শরীফুল আলম, সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম খান চুন্নু, জাহাঙ্গীর আলম মোল্লা, মো. রুহুল হোসাইন, অ্যাডভোকেট জালাল মো. গাউস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিক্ষোভ সমাবেশে প্রিন্স বলেন, সরকারের দুর্নীতি, লুটপাট সর্বজনবিদিত। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, কাদের সাহেবরা ‘ফ্রুটিকা’ পান করে মনের অজান্তেই সত্য কথা বলে ফেলেছেন। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দুর্নীতি-লুটপাট করে হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে, অবৈধ সম্পদের পাহাড় গড়ছে।

তিনি আরো বলেন, সরকারের ব্যর্থতায় সয়াবিনসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য জনগণের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে। জনজীবনে নাভিশ্বাস উঠেছে। তাই জনগণের পকেট কেটে নিজেদের পকেট ভারী করা আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজদের জনগণ আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। তিনি নেতাকর্মী ও জনগণের প্রতি চূড়ান্ত আন্দোলনের সর্বাত্মক প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বান জানান।


আরও পড়ুন