গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হবে ‘আত্মঘাতী’

এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি জসিম উদ্দিন বলেছেন, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম না বাড়িয়ে সরকারের উচিত হবে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের আমূল সংস্কার করা। অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা। সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

আজ শনিবার রাজধানীর মতিঝিলে এফবিসিসিআই কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জসিম উদ্দিন এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। বক্তব্য দেন বিটিএমইএর সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন, বিজিএমইএর সহসভাপতি শহীদুল্লাহ আজিমসহ অন্যরা।

সংগঠনের নেতারা বলেন, করোনা মহামারি কাটিয়ে সবাই যখন ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে ঠিক তখনই বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। এখন দাম বাড়ানো হবে সরকারের জন্য আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত।

সভাপতি জসিম উদ্দিন বলেন, কুইক রেন্টালের এক সময় প্রয়োজন ছিল। এখন আর তার প্রয়োজনীয়তা নেই। কুইক রেন্টাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ করা উচিত। অদক্ষ বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো বন্ধ করা উচিত। গ্যাসচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো অকার্যকর অবস্থায় পড়ে আছে। সরকার সেদিকে মনোযোগ না দিয়ে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে। সরকারের ভুল পরিকল্পনার খেসারত শিল্প খাত বহন করতে পারে না।

বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি আনোয়ার উল আলম বলেন, দেশে এখন ডলার–সংকট চলছে। ইউক্রেন–রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে পণ্যের দাম বাড়ছে। এখন যদি বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়, উৎপাদন খরচ বাড়বে, যার প্রভাব পড়বে ভোক্তার ওপর।


আরও পড়ুন