কটিয়াদীতে র‍্যাফল ড্রর নামে ‘বিশেষ জুয়া’ বন্ধ

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে তাঁত, বস্ত্র ও শিল্প মেলায় র‍্যাফল ড্রর নামে বিশেষ জুয়া খেলা বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন। শনিবার (২১ মে) জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম র‍্যাফল ড্র পরিচালনা কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেন।

নির্দেশের পর মাইকিং করে টিকিট বিক্রি চলমান আছে কি না, দেখতে শহরের বিভিন্ন সড়কে অভিযান চালান কটিয়াদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জ্যোতিশ্বর পাল। এ সময় তিনি ১০ জন টিকিট বিক্রেতাকে আটকও করেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাদের সাজা দেওয়া হয়।

জানা যায়, ৫ মে থেকে কটিয়াদী পৌরসভার ব্যবস্থাপনায় কটিয়াদী সরকারি কলেজসংলগ্ন একটি মাঠে চলছে তাঁত, বস্ত্র ও শিল্প মেলা। মাসব্যাপী এ মেলায় প্রতি রাতেই অনুষ্ঠিত হচ্ছিল র‍্যাফল ড্র। পাঁচ উপজেলাজুড়ে প্রায় ২৫০টি মাইকে প্রচার করা মেলার বিবরণের বদলে মোটরসাইকেল, স্বর্ণের চেইন থেকে শুরু করে সয়াবিন তেলের জারের লোভনীয় সব অফার দিয়ে লটারিতে অংশ নেওয়ার আহ্বান করা হচ্ছিল সাধারণ মানুষদের। ৫১টি পুরস্কারের লোভে পড়ে ২০ টাকা মূল্যের টিকিট কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়ত স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে নিম্ন আয়ের হাজারো মানুষ। পরে বিষয়টি জানতে পেরে এ র‍্যাফল ড্র কার্যক্রম পরিচালনা বন্ধের নির্দেশ দেন ডিসি।

কটিয়াদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জৌতিশ্বর পাল জানান, মেলার অনুমোদন রয়েছে, জুয়া খেলার নয়। মেলার আয়োজক পৌরসভা। স্যারের এই নির্দেশনা আমি পৌরসভার মেয়রকে জানিয়ে দিয়েছি। তবে মেলায় অন্যান্য কার্যক্রম পরিচালনায় বাধা নেই।


আরও পড়ুন