অবশেষে ইউনাইটেড ছাড়লেন রোনালদো

শেষমেষ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছেড়েই দিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো! আফসোসের বিষয়, যৌবনে যে ক্লাব থেকে বিশ্বের অন্যতম সেরা তারকা হিসেবে উত্থান হয়েছিল তার, সেই ক্লাবের সঙ্গে শেষটা হলো তিক্ততা নিয়ে। ঘোষণাটাও এলো খুব অদ্ভুত সময়ে। বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামার একদিন আগে উত্থান-পতনের ক্লাবকে বিদায় জানিয়ে দিলেন পর্তুগিজ তারকা।

চলতি মৌসুমে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার সুযোগ না পাওয়ায় শুরু থেকেই দল পরিবর্তনের চেষ্টা করেছেন রোনালদো। ভাঙনের শুরুটা সম্ভবত সেখান থেকেই। তবে তখন রোনালদোকে রেখে দিতে বদ্ধপরিখর ছিল ইউনাইটেড। এমনকি গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে, ইউনাইটেডে থাকার জন্য তখন তাকে সাবেক কোচ অ্যালেক্স ফার্গুসনকে দিয়েও অনুরোধ করানো হয়েছিল।

জোর করে রেখে দিলেও চলতি মৌসুমে রোনালদোকে দিয়ে ফলাফল আদায় করতে পারছিল না ইউনাইটেড। এমনকি মাঠের ফুটবলে একেবারেই বর্ণহীন ছিলেন তারকা এ ফুটবলার। তবে তার চেয়েও সমালোচনা বেশি ছড়িয়েছে মাঠের বাইরে তার কর্মকান্ড। প্রায়শই মাঠের বাইরে তার কাজকর্ম ও আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কোচ এরিক টেন হাগ। শুরুর দিকে রোনালদো চুপ থাকলেও মুখ খুলেছেন বিশ্বকাপ শুরুর কয়েকদিন আগে। এক সাক্ষাৎকারে কোচ ও ক্লাব নিয়ে বেশকিছু নেতিবাচক মন্তব্য করে আবার আলোচনায় আসেন তারকা এ ফুটবলার। এরপর ভাঙনটা ছিল সুধু সময়ের অপেক্ষা।

অবশেষে এলো সেই প্রত্যাশিত ঘোষণা। দুপক্ষের সম্মতিতেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়ছেন রোনালদো। সোমবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছে ইংলিশ ক্লাবটি।

বিবৃতিতে তারা লিখেছে, ‘দুপক্ষের সম্মতিতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়ছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। দুই দফায় ক্লাবে তার অবদানের জন্য ধন্যবাদ। ইউনাইটেডের হয়ে ৩৬৪ ম্যাচে ১৪৫ গোল করেছেন রোনালদো। রোনালদো এবং তার পরিবারের জন্য শুভকামনা।’


আরও পড়ুন