কিশোরগঞ্জে মাদক ও কিশোর গ্যাং দমনে ‘পুলিশের হোন্ডা পার্টি’

কিশোরগঞ্জ শহরে মাদক ও বখাটেদের উৎপাত নিয়ন্ত্রণে নতুন টিম গঠন করেছে জেলা পুলিশ। শহরবাসী বিশেষ এ টিমের নাম দিয়েছে ‘হোন্ডা পার্টি’। প্রতিদিন বিকেল ও সন্ধ্যায় প্রায় ২০টি মোটরসাইকেলে করে শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে টহল দেন এই টিমের সদস্যরা।

পুলিশের এমন উদ্যোগ ব্যাপক সাড়া ফেলেছে শহরবাসীর মধ্যে। শহরের বিভিন্ন অলি-গলি ও বখাটেদের আড্ডার স্থানগুলোতে নিয়মিত অভিযানও পরিচালনা করছে টিমটি। এতে শহরবাসীর মধ্যে ফিরেছে স্বস্তি।

পুলিশ সুপারের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত দেড় মাসে শহরের বিভিন্ন জায়গা থেকে অর্ধশতাধিক কিশোরকে বিভিন্ন অপরাধে আটক করে মুচলেকা নিয়ে তাদের পরিবারের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। এ সময় শতাধিক কিশোরের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থাও নেয়া হয়েছে। এ ছাড়া ১৪১ কিশোর অপরাধীর তালিকা তৈরি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৩১ জনের বিরুদ্ধে হত্যা, মাদক ও ছিনতাইয়ের নিয়মিত মামলা রয়েছে।

আরও পড়ুন : দুধ দিয়ে গোসল করে ছাত্রলীগ ছাড়া সেই নেতাকে কোপালো দুর্বৃত্তরা!

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ বলেন, প্রায় দেড় মাস ধরে তাদের এই বিশেষ টহল চলছে। অপরাধী হিসেবে নয়, প্রথম অবস্থায় সর্তক করার জন্য ধরা হচ্ছে। তবে কোনো অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থাও নেওয়া হচ্ছে। অভিভাবকদের সচেতন করা হচ্ছে কিশোরদের সব বিষয়ে যেন তারা খোঁজ-খবর রাখেন।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে মাদক এবং কিশোর গ্যাং প্রত্যেকটা এলাকার জন্য সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর কারণে চুরি, ছিনতাই, মারামারিসহ বিভিন্ন অপরাধ সংঘটিত হয়। তাই মাদক ও কিশোর গ্যাং দমনে জিরো টলারেন্স নিয়ে পুরো জেলাতেই এমন অভিযান চলবে।


আরও পড়ুন