দুধ দিয়ে গোসল করে ছাত্রলীগ ছাড়া সেই নেতাকে কোপালো দুর্বৃত্তরা!

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় দুধ দিয়ে গোসল করে ভাইরাল হওয়া ছাত্রলীগ নেতা আরমিন আহমেদকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার (২৬ নভেম্বর) দিনগত রাতে উপজেলার মির্জাপুর বাইপাস সড়কে হামলার শিকার হন তিনি।

আরমিন আহমেদ উপজেলা সদরের বড়বাড়ি এলাকার বাসিন্দা। তিনি পাকুন্দিয়া সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি।

পাকুন্দিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মজিবুর রহমান মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার দিনগত রাত ১০টার দিকে দুটি মোটরসাইকেলে করে আরমিনসহ চার বন্ধু থানারঘাট এলাকার একটি হোটেলে খেতে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে মির্জাপুর বাইপাস সড়কে পৌঁছালে দুটি মাইক্রোবাসে করে ১৫-২০ জন যুবক এসে তাদের গতিরোধ করে হামলা চালান। এসময় তিনি ও তার সঙ্গীরা দৌড়ে পালানোর সময় মাটিতে পড়ে যান আরমিন। তখন হামলাকারীরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আরমিনকে ফেলে রেখে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বাজিতপুরের জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন : কিশোরগঞ্জের নতুন ডিসি আবুল কালাম আজাদ

সংশ্লিষ্টদের ধারণা, নবগঠিত ছাত্রলীগের কমিটির নেতাকর্মীরা এ হামলায় জড়িত। কারণ দুধ দিয়ে গোসল করে ছাত্রলীগের রাজনীতি ছাড়ার ঘোষণার পর থেকে দলের অনেকেই আরমিনের ওপর ক্ষুব্ধ।

এর আগে গত ৬ অক্টোবর আরমিন আহমেদ পাকুন্দিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কাঙ্ক্ষিত পদ না পেয়ে ক্ষোভে দুধ দিয়ে গোসল করে সংগঠনটি থেকে বিদায় নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক ভাইরাল হন।


আরও পড়ুন