কিশোরগঞ্জে মুক্তিযুদ্ধকালীন অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের নামে স্মৃতিসৌধ উদ্বোধন করা হয়েছে। স্মৃতিসৌধে সৈয়দ নজরুল ইসলামের বিশাল একটি ভাস্কর্য রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০১ ডিসেম্বর) বিকেলে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কাটাবাড়িয়া-বড়পুল মোড়ে নির্মিত স্মৃতিসৌধটি উদ্বোধন করেন কিশোরগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ও সৈয়দ নজরুল ইসলামের মেয়ে ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি।

মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহাসিক স্থানগুলো সংরক্ষণ ও মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় এক কোটি ৫৫ লাখ টাকা ব্যয়ে এ স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) এ স্মৃতিসৌধ নির্মাণ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করেছে।

স্মৃতিসৌধ উদ্বোধনের সময় কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা প্রকৌশলী মো. মোজাম্মেল হক, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ভাইস চেয়ারম্যান মো. আব্দুস সাত্তার, নারী ভাইস চেয়ারম্যান মাছুমা আক্তার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনের পর অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে এমপি ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

Previous articleহাজিরা দিতে আদালতে মির্জা ফখরুল
Next articleলাঠি-আগুন নিয়ে মাঠে নামলে খবর আছে : বিএনপিকে কাদের
জন্ম কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর উপজেলায়। বাজিতপুরের এক অজপাড়া গ্রামেই বেড়ে উঠেছেন তিনি। পরিবারে দুই ভাই, এক বোনের মধ্যে সবার ছোট আরিফুলের শিক্ষাজীবন শুরু হয় স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। এরপর আফতাব উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজ, বাজিতপুর কলেজ হয়ে তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ ওয়ালীনেওয়াজ খান কলেজে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে অধ্যয়ন করেন। স্কুল জীবন থেকেই তাঁর লেখালেখির সূত্রপাত। আগ্রহ থেকেই ২০১২ সালে যুক্ত হন সাংবাদিকতায়। সাংবাদিকতা জীবনে ২০১৩ সাল থেকে দীর্ঘ ৩ বছর দৈনিক করতোয়ার বাজিতপুর প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও তিনি বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য দৈনিকে কাজ করেছেন। জন্মলগ্ন থেকে জুলাই ২০১৯ পর্যন্ত তিনি কাজ করেছেন মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠের কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি হিসেবে। বর্তমানে তিনি মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠের বার্তা সম্পাদক ও দৈনিক বাংলাদেশের খবরের কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত।