ফদিরপুরে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বোমা বিস্ফোরণ

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে সড়কে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। ঘটনাস্থল থেকে চারটি বোমা উদ্ধার করেছে বোয়ালমারী থানা পুলিশ। হঠাৎ সকালে চারটি বোমা ফাটার বিকট শব্দে ঘুম ভাঙে এলাকাবাসীর। এসময় এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক তৈরী হয়।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) সকাল ৭টার দিকে উপজেলার মাঝকান্দি-ভাটিয়াপাড়া আঞ্চলিক মহাসড়কের সাতৈর ইউনিয়নের জয়নগর পাকা রাস্তায় এসব বোমা বিস্ফোরিত হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে টায়ারের আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

এ ঘটনায় পুলিশের দাবি, বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা নাশকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। তবে বিএনপির পক্ষে থেকে বিষয়টি অস্বীকার করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল ওহাব বলেন, ঘটনাস্থলে পৌঁছে জানতে পেরেছি নাশকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে জয়নগর এলাকায় হাইওয়ে সড়ক বন্ধ করে ৭০-৮০ জন বিএনপি জামায়াতের নেতাকর্মী ও সমর্থক সড়কে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে কয়েকটি ককটেল ধরনের বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ১২ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৪টি বোমা উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থলের পাশেই স্থানীয় বিএনপি নেতা খন্দকার নাসিরুল ইসলামের ইট ভাটা অবস্থিত।

এ ব্যাপারে বোয়ালমারী উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বলেন, এটি কোনো পরিকল্পিত ঘটনা হতে পারে। বিএনপি কখনো এরকম নাশকতা করে না। তিনি দাবি করেন, কোনো একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলেই বিএনপিকে দায়ী করা হয়। যাতে সহজে মামলা দিয়ে হয়রানি করা যায়। এ ঘটনার সঠিক তদন্ত করে প্রকৃত অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

বোয়ালমারী ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখতে পাই রাস্তার পাশে টায়ারে আগুন জ্বলছে। পরে আমরা আগুন নেভাতে সক্ষম হই।

বোয়ালমারী থানার উপ-পরিদর্শক (এস,আই) আক্কাস আলী বলেন, বোমা বিস্ফোরণের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে চারটি বোমা উদ্ধার করা হয়েছে। নাশকতা সৃষ্টি করার উদ্দেশ্যে যারা বোমা ফাটিয়েছেন তাদের আটক করার চেষ্টা চলছে।

ফরিদপুরের সহকারী পুলিশ সুপার (মধুখালী সার্কেল) সুমন কর বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ইটপাটকেল, বিস্ফোরিত বোমার অংশবিশেষসহ চারটি বোমা উদ্ধার করেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও পড়ুন